আবুল বাসার সেরনিয়াবাদ এর দুটি কবিতা

প্রকাশিত: ৪:০১ অপরাহ্ণ , জুলাই ১৩, ২০২০

১.অমৃত পাখির ঠোঁটে মৃত্যু পালক

অনন্তকালের পাখি আরণ্যক পুরাণের গল্পের পাখি
অমৃত বাসনা তার নক্ষত্রের ঠিকানায় নিত্য পথ চলা
আষাঢ়স্য অশ্রুপাত প্রকৃতির চিরন্তন শোকের মাতম
মেঘের বিলাপ দেখে নদীদের অবিরত তীরভাঙ্গা ঢেউ
এইতো অনন্তকাল পথ চলা স্বপ্নাতুর জীবনের রথে
মৃত্যু সঙ্গমে শেষ পার্থিব জীবনের আরণ্যক স্মৃতি

পুষ্পগন্ধী যুবতীরা হেঁটে যায় আজো অশ্বত্থ বৃক্ষতলে
সেইখানে পৌরাণিক ঘোষগ্রাম বালিকা রাধার প্রিয়স্মৃতি
ভাদ্র অমার রাতে হাঁটে রাধারানী কাঁটা বিঁধে পায়
তারপরও ম্মৃতির হিয়ায় দেখো কতোকাল ফুঁটে আছে
চিরন্তন প্রেমের শিখরে প্রিয় হৃদয়ের নীলোৎপল মনি

হীরকের উজ্জ্বল মুকুট ; এইতো জীবন হাজার বছর
সোনার জিয়নকাঠি হাতে নিয়ে রাজপুত্র জেগে থাকে
শিয়রে সতত ; তবু হায় মৃত্তিকায় ফুটে থাকে নীল ফুল
মৃত্যুর বাসর ভেঙ্গে রাজকণ্যার ঘরে ফেরা হয়ে ওঠেনা
ঝড়ের তান্ডবে দেখো ভেঙ্গে যায় জাহাজের পালের মাস্তুল

হায় পাখি অনন্তকালের পাখি পুরাণের গল্পের পাখি
ঠোঁটে তার মৃত্যুর পালক তবু অমৃত বাসনা নিয়ে
চিরন্তন পথ চলা তার ; এইতো পবিত্র ভূমি বাংলাদেশ
উত্তরে পাহাড় দক্ষিণে সাগর মধ্যে ভাওয়াল গড় মধুপুর

গারো সাঁওতালের ডেরা সুনসান আবহমান চিত্রকল্প গ্রাম
জয়নগর, সরিষাবাড়ি জামালপুর স্মৃতিময় প্রিয় সাকিন
জন্মের ঠিকুজি যার বাংলা ও বাঙালি , মুক্তিযুদ্ধ একাত্তর
যার জঙ্গনামা, হৃদয়ে মানুষ মাটি চিরন্তন চাওয়া পাওয়া

এইসব প্রিয়কথা প্রিয়মুখ প্রিয় কবিতার শব্দকল্প রথ
খেরোখাতা চিত্রকল্প জীবনের অনুপুংখ ভূগোল মানচিত্র
আকাশের যায়মান অতিথি পাখির মতো আগন্তুক কেউ
কোথাও নেয় না কোনো বিশ্রাম। শ্রান্তি নেই, ক্লান্তি নেই
উড়ে চলা প্রস্তর প্রহর ধরে অবিরত আরণ্যক মোহে

যাবার সময় হলে চলে যায়, অসময় সময় মানেনা
তারপর চিরায়ত আষাঢ়স্য অশ্রুপাত শোকের মাতম
অমৃত পাখির ঠোঁটে চিরকাল অনন্তর মৃত্যুর পালক
অমরত্ব আছে শুধু কবিতার বোধের জগতে স্মৃতিপটে

স্মৃতি শুধু পোড়ায় আজন্ম কাল মানবিক মনুষ্য হৃদয়
অবিরত অনিপুণ অশ্রুপাত আষাঢ়স্য নির্মোহ নীলকন্ঠ মেঘ,
লোকায়ত যায়মান জীবন যাপন, হৃদয়ের আর্ত অলিন্দে
শুধু অনিবার্য দুঃখবোধের বিপরীতে চিরায়ত স্মৃতির কুহক।

২. ইচ্ছেফড়িং এবং

রঙধনু নানা রঙে প্রতিঘাত অবিরত সম্ভাবনাময়
সবুজ ঘাসের ডগা মাথাউচুঁ বীরজায়া ফলবতী ঋতু
স্পর্শের অতীত দ্রুত চঞ্চল পাখা নিত্য জাগরুক হিয়া
ছায়াতীত কায়াপঙ্খী আমরণ দিগ্বিদিক ছোটাছুটিরত

আলস্য সারল্য দোষ তবু পঙ্খী ডানা ঝাপটায়
নৈঃশব্দের সিঁড়িভাঙ্গা ছাদ পাড়ভাঙ্গা হেমবতী নদী
আন্তঃক্রিয়া মিথস্ক্রিয়া জাগতিক বোধ জীবের জগত
চতুরঙ্গ বহুরঙ্গ সোহবত নহবত অলীক ফাগুন

কোথায় সুবর্ণগাঁও একদিন রঙধনু রঙে রাঙা ছিলো
ইচ্ছেফড়িং রোজ বর্ণিল ডানা মেলে মুক্ত আকাশে উড়ে যেতো
আরণ্যক সেই গাঁয়ে কতো কথা কতো গান কতো প্রিয়মুখ
হায় কবি সুনসান সে বাথান উজাড় নির্জন হিয়া কাঁদে

ইচ্ছেফড়িং এবং তুমি নিরন্তর অতলান্ত হৃদয়ের তলে
এখনোতো স্বপ্নের সোনালি আকাশে মায়াবী আবীর রঙ আঁকো
স্বপ্নগুলো আদিম পঙ্খী রঙের কৌটো সুনীল মায়াপরী
মনের মধ্যে ডানা মেলে উড়ে চলে অবলীলায় গ্রহ-গ্রহান্তরে।