বাসনা রায় এর সমসাময়িক চারটি ছড়া

প্রকাশিত: ১:১২ পূর্বাহ্ণ , জুলাই ১২, ২০২০
(এক)
সময়
 
সময় বড়ই মন্দ যাচ্ছে
সবার জীবনে
অতীত দিনের স্মৃতি খুঁজি
অন্ধ নয়নে।
 
নাই কোলাহল কোথাও যেন
শিশুরা সব বন্দী,
কি করে এই সময় কাটাই
করছি সবে ফন্দী!
 
তবুও জীবন চলছে বয়ে
নদীর স্রোতের মত।
ফুল পাখি আর প্রজাপতি
খেলছে অবিরত।
 
গান কবিতা ছড়া লিখি
এই না অবসরে,
মনে আশা জাগবে বিশ্ব
ছন্দ মুখরে।
 
বদ্ধ ঘরের চার দেয়ালে
থাকতে চাইনা আর,
সকল বাঁধা পেরিয়ে যাবোই
দূর হবে আঁধার।
রচনা কাল- ১১/০৭/২০২০
 
 
(দুই)
বর্ষার সবজি
 
আষাঢ় শ্রাবণ বৃষ্টি নামে
সূর্য নাহি হাসে,
বর্ষাকালে সবজি প্রচুর
সবাই ভালোবাসে।
 
পুঁইমাচাতে শাক ভরেছে
আনতে হবে ছিঁড়ে,
চিচিঙ্গা আর ঝিঙে দোলে
বাতাস বহে ধীরে।
 
হেলেঞ্চা আর কলমি ডগা
ঘাটের জলে ভাসে,
ঢেঁড়স গাছে ফুল ফুটেছে
সারাটা দিন হাসে!
 
কচুরলতি পটল ডাঁটা
করোলা তার সাথে
হেসে হেসে গল্প করে
হাটবাজারে যেতে!
 
চালের উপর চালকুমড়ো
ধরছে কেবল সবে,
মিষ্টিকুমড়োর কচি পাতা
ভাজি সবাই খাবে।
 
বরবটি ও বেগুন মরিচ
আরো সাধের লাউ,
খেতে যদি চাও গো সবাই
গ্রামের বাড়ি যাও।
 
সবজিগুলোয় বেজায় পুষ্টি
আছে সবার জানা,
বেশী করে খাও গো সবাই
করবে না কেউ মানা।
রচনা কাল ১০/০৭/২০২০
 
 
(তিন)
ইলিশ
 
ইলিশ তুমি বেজায় দামী
ভালোবাসি তোমায় আমি।
তোমার স্বাদে,তোমার গন্ধে
বিভাের থাকি দিবসযামী।
 
তুমি সবার প্রিয় জানি
মৎস্যরাজা তোমায় মানি।
তোমার রূপে,তোমার গুণে
বাজার থেকে কিনে আনি।
 
গরিব তোমার পায়না নাগাল
তাদের ঘরে ভাতের আকাল।
ধনীরা সব খায় যে তোমায়
ইচ্ছেমত সকল সময়।
 
তোমায় নিয়ে রম্যকথা
রসিক লেখে মনের ব্যথা।
লোনাজলের কথকতা
লিখতে গেলে ভরে খাতা।
 
জন্মদিনে বিয়ের দিনে
খাদ্যরসিক তোমায় কিনে।
জামাইবরণ হয় যে চাপা!
না যদি হয় তোমার ভাঁপা!
 
নববর্ষে তোমায় বিনা
উৎসব হয় যে বর্ণহীনা।
দেশবিদেশে তোমার সুনাম
তাইতো জানাই তোমায় প্রণাম।
রচনা কাল ০৯/০৭/২০২০
 
(চার)
করোনা
 
করোনা হে করোনা
কেন তুমি মরোনা?
ধ্বংস করতে চাইছো তুমি
সবার মনের বাসনা?
 
করোনা হে করোনা
ভয় তোমাকে করিনা
স্বাস্থ্যবিধি চলছি মেনে
তাও কি তুমি বোঝনা?
 
করোনা হে করোনা
করো মোদের করুণা,
যেখান থেকে এসেছো তুমি
সেখানে ফিরে যাওনা।
 
করোনা হে করোনা
তুমি মানবতা বোঝনা
তোমায় তাড়াতে ধনী গরিব
এক হয়েছে দেখোনা!
 
করোনা হে করোনা
আর জনগণ মেরোনা
তোমার জন্য আমার শিশু
খেলতে মাঠে পারেনা।
 
করোনা হে করোনা
দুষ্টু তুমি সরোনা
তোমার জন্য ডাক্তার পুলিশ
বিশ্রাম নিতে পারেনা।
রচনা কাল ০৮/০৭/২০২০
লেখিকা: মাগুরা পিটিআই সংলগ্ন পরীক্ষণ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা