হালদায় নমুনা ডিম ছেড়ে মা মাছ

প্রকাশিত: ৯:০৭ পূর্বাহ্ণ , মে ১৪, ২০২২

দক্ষিণ এশিয়ার বিখ্যাত অন্যতম মৎস্য প্রজননক্ষেত্র মা মাছের মেটারনিটি ক্লিনিক হিসাবে খ্যাত বঙ্গবন্ধু মৎস্য হেরিটেজ চট্টগ্রামের হালদা নদীতে নমুনা ডিম ছেড়েছে কার্প জাতীয় মা মাছ। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭ টা থেকে রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত হালদা নদীর আজিমের ঘাট, কুমারখালী, নাপিতের ঘাটা, মাছুয়াঘোনাবাঁক, আমতুয়া অংশে নমুনা ডিম পাওয়া গেছে। তবে খুব অল্প সংখ্যক পাওয়ায় নমুনা ডিম হালদায় ফেলে দেয়া হয়। শুক্রবার সকালে সরেজমিনে ডিম সংগ্রহকারীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাতে জোয়ারের সময় ডিম সংগ্রহকারী মো. তৈয়্যব ৩০ পিস, হাফেজ মো. কবির ১২ পিস, আবু তাহের ১ পিস, গোলাফুর রহমান ৮ পিস, বাবুল ২৫ পিস, ফখরুদ্দিন ৭ পিস ও হোছেন ২০ পিস করে নমুনা ডিম সংগ্রহ করে। তবে ভাটায় এবং শুক্রবার সকালে জোয়ারের সময় ডিম সংগ্রহকারীরা আবারো নৌকা ও বাঁশের ভোরকায় চড়ে জাল ফেললেও আর কোন নমুনা ডিম পাওয়া যায়নি। তবে এ নমুনা ডিম সংগ্রহকারীদের জন্য সুবার্তা। রোববার পূর্ণিমা, বজ্রসহ বৃষ্টি আর পাহাড়ি ঢলের স্রোত ও ঘোলা পানি হালদায় প্রবেশ করলেই পুরোদমে ডিম ছেড়ে দিবে মা মাছ এ আশায় হালদা পাড়ে অপেক্ষায় রয়েছেন শত শত ডিম সংগ্রহকারী। এদিকে, রাতে নমুনা ডিম পাওয়ার সংবাদ পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. শাহিদুল আলম হালদার বিভিন্ন স্পট পরিদর্শন করেন। সত্যতা নিশ্চিত করে ইনকিলাবকে তিনি বলেন, সরেজমিনে গিয়ে বেশ কয়েকজন ডিম সংগ্রহকারীদের নিকট নমুনা ডিম দেখতে পেয়েছি। তবে নমুনা কম হওয়ায় ফের হালদায় ছেড়ে দিয়েছে সংগ্রহকারীরা। ডিম সংরক্ষণ ও রেণু উৎপাদনে হাটহাজারীর তিনটি সরকারি হ্যাচারী শতভাগ প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি।