কী জটিল রসায়ন ভালবাসার – অনিন্দ্য টিটো

প্রকাশিত: ৬:১৬ অপরাহ্ণ , ডিসেম্বর ২৬, ২০২২

কী জটিল রসায়ন আমাদের ভালবাসার

তুমি হাসো, আমি পূড়ি
তোমার ঘনতমসার সিঁথিতে শুধু দেখি
রঙিন প্রজাপতিদের ওড়াউড়ি!
আমার কাতর দু’চোখ দেখে শীতের উত্তুরে হাওয়ায় ওড়ে
তোমার চুলরাশি, জানলার পর্দা;
বুকের আঁচলও পড়ে যায় হিমেল হাওয়ায়!
রাতের ডালপালা ইশারায় ডাকে
তারারাও জ্বলে দূরের আকাশে
মেঘেদের ভিড়ে, চাঁদটাই শুধু আড়ালে থেকে যায়।
অথচ শীতের শেষে বসন্তের আহবানে
সবুজাভ হয় রুক্ষ-রুষ্ট কঠিন পাহাড়ও
কচিপাতায় সেজে ওঠে অরণ্য।
ষড়ঋতুর সর্বশেষ বসন্তও চলে যায় বারবার
তবুও বুকের ভেতরটা ঊষর, রূক্ষ
জনমানবহীন, যেন প্রাণহীন শূন্য!
আমি জানি না
কিংবা মনেই করতে পারি না
কীভাবে, কখন, কোন গোপন সংকেতে ছুঁয়েছে আমায়
তোমার ও মুখ, দু’চোখ, গোলাপি ঠোঁটজোড়া;
কী জটিল রসায়ন ওই আবেগপ্রবণ ভালবাসার!
একফোঁটা শিশিরের চুম্বনের জন্যে কাঁদে মৃতপ্রায় ঘাস
সজলও হয় ঘুমমাখা রাতের হাওয়া, দীর্ঘশ্বাসে
দেখতে পাও না তুমি! সময় নেই ফিরে তাকাবার;
আমার ভেতরে শুধু জেগে থাকে এক অদ্ভূত তোলপাড়
অদ্ভূত এক টানাপোড়েন, বারবার ফিরে আসার!