ধর্ষক আটক

স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষন করে ভিডিও ধারন

প্রকাশিত: ৪:৫৭ অপরাহ্ণ , নভেম্বর ২৪, ২০২২

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে প্রেমের প্রলোভনে স্কুল ছাত্রীকে একাধিকাবার ধর্ষণ অতঃপর ভিডিও চিত্র ধারণ। আবারও ওই ছাত্রী ধর্ষণে রাজী না হলে ধর্ষকছাত্রীর নাম ব্যবহার করে আইডি খুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি পোষ্ট করে। বিষয়টি এলাকায় ব্যাপক আলোড়ণ সৃষ্টি হলে ছাত্রীর পিতা মনোজ মন্ডল বাদী হয়ে বুধবার রাতে ধর্ষক কালাইয়া গ্রামের রাম ব্যাপারীর ছেলে হৃদয় ব্যাপারী ও তার সহযোগী ভগ্নিপতি সুব্রত সরকারের বিরুদ্ধে ইন্দুরকানী থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগের দুইদিন পরে বুধবার রাতে ধর্ষণে অভিযুক্ত হৃদয় ব্যাপাীকে তার বাড়ী থেকে আটক করে পুলিশ। বাদীর অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, ইন্দুরকানী সরকারী সেতারা স্মৃতি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর ছাত্রী কে প্রেমের প্রলোভনে একই গ্রামের হৃদয় ব্যাপারী (২০) এ বছর ৫ মে তার ভগ্নিপতির বাড়ীতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে ভিডিও চিত্র ধারণ করে। ভিডিওর ভয় দেখিয়ে ওই ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। পরে ছাত্রী এ কাজে রাজী না হওয়ায় গত ১৪ নভেম্বর ও ২০ নভেম্বর ছাত্রীর নামে আইডি খুলে হৃদয় ব্যাপারী ওই ছাত্রীর অর্ধনগ্ন ছবি ফেসবুক আইডিতে ছেড়ে দেয়।
ছাত্রীর পিতা জানান, আমার মেয়েকে হৃদয় ব্যাপরী দীর্ঘদিন ধরে স্কুলে যাওয়ার পথে উত্যক্ত করে। প্রেমের প্রলোভনে তার ভগ্নিপতির বাড়ীতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে ভিডিও চিত্র ধারণ করে। পরে ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে একধিকবার ধর্ষণ করে। পরে মেয়ে আর রাজী না হওয়ায় তার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেয়। আমি ধর্ষকের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবীতে মঙ্গলবার থানায় লিখিত অভিযোগ করেছি। অভিযুক্ত ধর্ষক হৃদয় ব্যাপারীকে গ্রেফতার করেছে । আমাকে স্থানীয় ভাবে ব্যাপারটি মিমাংসার জন্য বিভিন্ন মহল থেকে চাপ দেয়।
ইন্দুরকানী থানার ওসি মোঃ এনামুল হক জানান, উক্ত বিষয় ্একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি । উভয় পক্ষকে থানায় ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে । পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে ।