শুভজন’র দশম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে দেশের দশজন বিশিষ্ট নাগরিককে সম্মাননা এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

প্রকাশিত: ১০:৪১ অপরাহ্ণ , ডিসেম্বর ৪, ২০২১

শুভজন’র দশম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে দেশের দশজন বিশিষ্ট নাগরিককে সম্মাননা এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

‘মানবিক মানুষ চাই’ প্রত্যয় দীপ্ত শুদ্ধধারার সাহিত্য সাংস্কৃতিক কর্মীদের সংগঠন শুভজনের দশম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে আয়োজন করা হয় শুভজন’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উত্সব ও গুণীজন সম্মাননার।

অনুষ্ঠানে দেশের দশজন বিশিষ্ট নাগরিককে গুণীজন সম্মাননা প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম এমপি, সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শুভজন পদকপ্রাপ্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু চেয়ার প্রফেসর এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড আতিউর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পুলিশের ডিআইজি একেএম শহীদুর রহমান পিপিএম,এনডিসি ও ডিআইজি (রাজনৈতিক) ইন্জিনিয়ার এজেডএম নাফিউল ইসলাম । শুভজন’র প্রতিষ্ঠাতা ও সাধারণ সম্পাদক আবৃত্তিশিল্পী তরুণ রাসেল এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন শুভজন উপদেষ্টা এবং বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির সভাপতি শাহিদ উল মুনীর। অনুষ্ঠানের শুরুতে শুভজন পদকপ্রাপ্ত গুণীজন কামাল লোহানী এবং গুনীজন সম্মাননাপ্রাপ্ত অধ্যাপক ড ইনামুল হকসহ দেশবরেণ্য কয়েকজন গুণীজনের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব উপস্থাপন করেন শুভজন কেন্দ্রীয় নির্বাহী পর্ষদের সহ সভাপতি এবং শরীয়তপুরের নড়িয়া পৌরসভার মেয়র কবি হিরন্ময় আজাদ। এরপর সংগঠনের পক্ষ থেকে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মুমিন চৌধুরী জসীম এবং শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সাংগঠনিক সম্পাদক নাসিরউদ্দিন শাহ ।

এরপর দেশের দশজন বিশিষ্ট নাগরিককে দেয়া হয় গুণীজন সম্মাননা। সম্মাননাপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন- প্রবীণ গিটারিস্ট ও স্বরলিপিকার এনামুল কবীর, বাংলাদেশ রেলওয়ের সাবেক মহাপরিচালক ও সুলেখক মোহাম্মদ শামসুজ্জামান, পাওয়ায় সেল এর মহাপরিচালক এবং আন্তর্জাতিক জ্বালানি বিশেষজ্ঞ ইন্জিনিয়ার মোহাম্মদ হোসাইন, শুভজন’র সাবেক সভাপতি এবং শিশুসাহিত্যিক এম আর মনজু, বিশিষ্ট সমাজসেবক এবং গুলশান-১ ডিএনসিসি দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মোঃ আক্তারউজ্জামান, বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড উত্তরাঞ্চল রংপুর এর প্রধান প্রকৌশলী জ্যোতি প্রসাদ ঘোষ, স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটির পরিচালক ও বোর্ড অব ট্রাস্টি মেম্বার রুমানা হক রিতা, বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ) সভাপতি শহীদুল ইসলাম পাইলট, বিশিষ্ট মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ও সমাজসেবক চৌধুরী নিজাম নিশো এবং নওগাঁ পৌরসভার কাউন্সিলর শেখ মোজাম্মেল হক মজনু প্রমূখ।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে শুভজন’র সংগঠনের সাথে যুক্ত আরও সাতজন গুণী সদস্যকে পুরস্কার প্রদান করা হয়। এদের মধ্যে সংগীতশিল্পী রুবিয়া মল্লিকা (উচ্চাঙ্গসংগীত), অঞ্জলি চৌধুরী (আধুনিক গান), সুমন শীল (যন্ত্রসংগীত), ইসরাত মিতু (সেরা সংগঠক), আব্দুল মুমিন চৌধুরী জসীম (সেরা সংগঠক), এবং ইমরান পরশ ও নাইমুল রাজ্জাক পেয়েছেন শুভজন লেখক পুরস্কার।

অনুষ্ঠানের প্রথমপর্বে আলোচনা সভায় উপস্থিত অতিথিরা বলেন- যাঁরা অন্ধকারে পথে দেখিয়ে আলোর পথে নিয়ে যায় তাঁরাই শুভজন। যাঁরা সবসময়ই দেশ ও দশের সেবায় নিয়োজিত তাঁরা শুভজন। শুভজন’র সাথে সম্পৃক্ত সম্মিলিত যুব সমাজ দেশ থেকে সকল সাম্প্রদায়িক শক্তিকে প্রতিহত করে মুক্তিযুদ্ধের বীরত্বগাঁথা ইতিহাসকে চিরঞ্জীব করে রাখতে বদ্ধপরিকর। আজকে সেইসব শুভ মানুষদের সংগঠন শুভজনের দীর্ঘ দশ বছরের সফল পথচলায় আমাদের প্রত্যাশা রইলো শুভজন বেঁচে থাকুক শত সহস্র বছর।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয়পর্বে মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক সন্ধ্যার আয়োজন করা হয়। এ পর্বে সংগীত পরিবেশন করেন সংগীতশিল্পী রুবিয়া মল্লিকা, বি ডি হ্রদয়, অঞ্জলি চৌধুরী, তানজিম বিন তাজ প্রত্যয়, লুসি, কাঁকন, জেসমিন, স্বপ্না, এবং রেদোয়ান। নৃত্য পরিবেশন করেন নৃত্যশিল্পী সাদিকা মালিহা শখ, এশা এবং শিশুশিল্পী মিষ্টি।

আবৃত্তি করেন আবৃত্তিশিল্পী রুমানা হক রিতা, তরুণ রাসেল, কবি ফাহমিদা লোপা, কবি নুরুন নেওয়াজ রানা এবং রোমান হোসাইন। দোতারা বাজিয়ে অপূর্ব সুরের মূর্ছনায় পুরো অনুষ্ঠান মোহনীয় করে তোলেন দোতারা শিল্পী সুমন শীল।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!