কুরবানী – মো. আলী আশরাফ মোল্লা

প্রকাশিত: ১২:০৬ অপরাহ্ণ , জুলাই ২০, ২০২১

দাও কুরবানী জান ও মাল
পরিশুদ্ধ করো নিজ এবং পরিবারকে
কুরবানি করা শুধু লোক দেখানোর জন্য নয়
তা কেবলই সৃষ্টিকর্তার সন্তুষ্টি অর্জন।

কুরবানী করা ওয়াজিব হয়েছে যাদের উপর
তারা কোরবানি না করিলে জবাব দিবে আখিরাতে
লোক লজ্জার ভয় থেকে বাচতে যারা দিবে কুরবানী
তারা করবে মহান রবের সাথে শুধুই ভন্ডামী।

কুরবানীর পশুর কিছুই পৌছবে না রবের কাছে
পৌঁছবে শুধুই তোমার নিয়ত আর তাক্কওয়া
বিশুদ্ধ কোরবানির জন্য নিয়ত সহি হওয়া খুব জরুরী
আল্লাহর নামে জবাই না হলে সবই বরবাদ হবে।

ঈদুল আজহা মানেই হলো ত্যাগের উৎসব
ত্যাগ হতে হবে শুধুই মহান রবের সন্তষ্টির জন্য
অন্য কারো উদ্দেশ্যে নয়, কারো খুশীর জন্য নয়
লোক দেখানো হলে পরে কুরবানী নষ্ট হবে।

যার সামর্থ্য আছে সে যদি কুরবানী না করে
সে যেন ঈদগাহের ধারে কাছেও না আসে
ঈদের নামাজ আদায় শেষে কুরবানী করতে হবে
নামাজের আগে কুরবানী হলে তা সহি নাহি হবে।

ঈদ মানে আনন্দ ঈদ মানে উৎসব
কুরবানী ঈদ মানে ত্যাগের উৎসব
ত্যাগ করো সহি মনে আল্লাহর সান্নিধ্যে
বিলাও গরীব দুঃখী আর অনাহারীর মাঝে

প্রতিবেশীকেও দাও সাধ্য মতে
নিজেও খাবে পরিবারকেও খাওয়াবে
কোন বাধা বিপত্তি নাই তাতে
শুধু নিয়ত হবে রবের সন্তষ্টি অর্জনে।