কঠোর অবস্থানে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী

প্রকাশিত: ১২:৪৯ অপরাহ্ণ , জানুয়ারি ২৩, ২০২১

চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ করতে প্রস্তুত আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। এরই মধ্যে কিছু সহিংস ঘটনা ঘটলেও শক্তভাবেই সামাল দিয়েছে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন। ভোটের আগে নগরের প্রতিটি মোড়ে বসবে তল্লাশি চৌকি।

এবারের নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ৪১৭টি ভোটকেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছে। কেন্দ্রগুলোর আশপাশের এলাকায় কয়েক দিন ধরেই চলছে ব্লক রেইড।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার সালেহ্ মোহাম্মদ তানভীর বলেন, ব্লক রেইড, চেকপোস্ট এবং বিভিন্ন মোটরসাইকেল, সিনজি, মাইক্রোবাস এগুলো যেন নাশকতা কাজে ব্যবহৃত হতে না পারে তার ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

২৭ জানুয়ারির সিটি নির্বাচনে নাশকতার আশঙ্কা আছে পুলিশ প্রশাসনের। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে নগরীর নিরাপত্তা ব্যবস্থা সাজানো হচ্ছে।

পুলিশ কমিশনার সালেহ্ মোহাম্মদ তানভীর বলেন, প্রতিটি ওয়ার্ডে দুটি করে মোবাইল টিম থাকবে। প্রতিটি থানায় একটি করে স্ট্রাইকিং টিম থাকবে এবং প্রতিটি বিভাগ ডিসির আওতায় শতাধিকের উপর ফোর্স থাকবে।

বহিরাগতদের ঠেকাতে চট্টগ্রাম নগরের প্রবেশপথগুলোতে নিরাপত্তা চৌকি বসানো হয়েছে। অচেনা লোকজন দেখলে নিকটবর্তী থানায় খবর দিতে স্থানীয়দের অনুরোধ জানিয়েছে প্রশাসন।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আরও বলেন, বিভিন্ন জায়গাতে বোর্ডার এবং ভাড়াটে আসতে পারে এগুলোর উপর নজরদারি থাকবে থানা পুলিশের মাধ্যমে। সিএমআইএস ফর্ম যেটা আছে, এটার উপরে আমরা তথ্য সংগ্রহ করছি।

পুলিশ দলমত নির্বিশেষে সব প্রার্থীর অভিযোগ আমলে নিচ্ছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নিচ্ছে।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন উপপুলিশ কমিশনার (উত্তর) বিজয় বসাক বলেন, নির্বাচনের সময় যে কোন ধরনের সহিংস ঘটনাই কিন্তু সংবেদনশীল ঘটনা হিসেবে পরিচিত। আমরা কোন প্রকার বিভাজ্য করেনি, যিনি এসেছেন তিনি মামলা দিয়েছেন।

ভোট নিয়ে এবার ভোটারদের মাঝে ব্যাপক আগ্রহ। শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সতর্ক অবস্থানে থাকবে বলে আশ্বস্ত করছে পুলিশ প্রশাসন।