বাংলা একাডেমী পুরষ্কার প্রাপ্ত পটিয়ার দুই কৃতি সন্তান সংবর্ধিত

এস.এম.এ জুয়েল এস.এম.এ জুয়েল

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ১১:৪৮ অপরাহ্ণ , ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৩

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বাংলা একাডেমী পুরষ্কার প্রাপ্ত পটিয়ার দুই কৃতি সন্তান মুহাম্মদ শামসুল হক ও মিলন কান্তি দে’ কে পটিয়া একুশে স্বরণে পরিষদের উদ্যোগে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে।সোমবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে পটিয়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম চারুকলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর আবদুল আলীম। চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় পরিষদ সদস্য সচিব বীরমুক্তিযোদ্ধা চৌধুরী মাহাবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মুহাম্মদ বদিউল আলম। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, এডভোকেট বদিউল আলম, সাবেক ছাত্রনেতা হুমায়ুন কবির রাশেদ, আলী আকবর ছিদ্দিকী, বীরমুক্তিযোদ্ধা গোলাম কিবরিয়া বাবুল,সংগঠক বিধুভূষণ দাশ সাবেক উপজেলা যুবলীগ যুগ্ম আহবায়ক ডিএম জমির উদ্দিন, সাবেক ছাত্রনেতা সাহাব উদ্দিন, সাবেক পৌরসভা ছাত্রলীগ সভাপতি সোহেল ইমরান, উপজেলা জাতীয় শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ রফিক হাসান, যুবলীগ নেতা হাসান শরীফ, শ্রমিক লীগ নেতা সাইফুদ্দীন ভোলা, মোঃ মহিউদ্দিন, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা যুবলীগ নেতা সাইফুল ইসলাম শাহীন, তৌহিদুল আলম জুয়েল, উজ্জ্বল ঘোষ, রিটন বড়ুয়া, ছাত্রলীগ নেতা সাজ্জাদ হোসাইন প্রমূখ। পরে সংবর্ধিত পটিয়ার কৃতি দুই সন্তানকে ক্রেস্ট ও সন্মাননা প্রদান করেন অতিথিবৃন্দরা এবং শহীদ মিনারের অমর একুশে উপলক্ষে সঙ্গীত, কাব্য, কথামালা, দেশাক্তবোধক গান পরিবেশন করা হয়। এ সময় বক্তারা ১৯৯৯ সালের ১৭ নভেম্বর ইউনেস্কো ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের স্বীকৃতি দেয় সেই থেকে এখন পর্যন্ত ১৯৩টি দেশে একুশে ফেব্রুয়ারি মাতৃভাষা দিবস হিসেবে পালিত হচ্ছে। রফিক, সালাম, বরকত ও জব্বারসহ অসংখ্য ভাষা প্রেমীদের রক্তের বিনিময়ে কেবল মায়ের ভাষা নয়, স্বাধীনতার বীজও রোপিত হয়েছিল। অমর একুশ আমাদের গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ, বাঙালি জাতীয়তাবাদ,মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং ধর্মনিরপেক্ষতার প্রতীক। একুশের চেতনা ও মুক্তিযুদ্ধের মুল্যবোধকে ধারণ করে তরুণ প্রজন্মকে দেশ গড়ার প্রত্যয় নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার আহবান জানান।

Loading