১৮ বছর পর ধর্ষণ মামলায় দুই আসামির যাবজ্জীবন

প্রকাশিত: ৬:৫৫ অপরাহ্ণ , সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২২

ভোলায় ১৮ বছর পর ধর্ষণ মামলায় দুই আসামিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডের পাশাপাশি দুই লাখ টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১টায় ভোলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ নূরুল আলম মোহাম্মদ নিপু এই রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় এক আসামি আদালতে উপস্থিত থাকলেও অন্যজন পলাতক রয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- মোঃ সে‌লিম ও না‌সিম। তাদের বাড়ি চরফ্যাশন উপজেলার চরযমুনা গ্রামে। এছাড়া নির্দোষ প্রমাণিত হওয়ায় মামলার অপর চার আসামিকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, ২০০৪ সালের ৬ জুন চরফ্যাশন উপজেলার চরযমুনা গ্রামে ভুক্তভোগী নারীকে তার নিজ বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে একই এলাকার আসামি মোঃ সে‌লিম ও না‌সিম গংরা বাড়ির পাশের একটি মাঠে দলবেঁধে ধর্ষণ করে। ঘটনার দুই দিন পর ধর্ষণের শিকার ওই নারী বাদী হয়ে চরফ্যাশন থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলায় একাধিক সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ ও জেরা শেষে বিচারক আসামি মোঃ সে‌লিম ও না‌সিমকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও দুই লাখ টাকা জরিমানা আদায়ের আদেশ দেন। অন্যদিকে নির্দোষ প্রমাণিত হওয়ায় মামলার অপর চার আসামিকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়।

এ রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে সরকার পক্ষের মামলা পরিচালনাকারী পিপি হুমায়ুন কবির বলেন, ১৮ বছর পরে হলেও আসামিরা দৃষ্টান্তমূলক সাজা পাওয়ায় আমরা মনে করি ভিক্টিম ন্যায় বিচার পেয়েছে।

অপরদিকে আসামি পক্ষের আইনজীবী এডভোকেট মাহাবুবুল হক লিটু বলেন, আসামিরা ন্যায় বিচার না পাওয়ায় তারা উচ্চ আদালতে আপিল করবেন।

Loading