পদ্মা সেতু – মো. আলী আশরাফ মোল্লা

প্রকাশিত: ১১:৫৭ পূর্বাহ্ণ , জুন ১৮, ২০২২

সারা বিশ্ব তাকিয়ে আছে বাংলাদেশের প্রাণে
বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম পদ্মা সেতুর উদ্ভোধন ২৫ জুনে
অনেকেই ভেবেছিলো পদ্মা সেতু নির্মানে ব্যর্থ হবে
সবার ধারণা পালটে দিয়ে স্বপ্নের সেতু বাস্তবেই রুপ নিলো তবে।
অনেক জ্বল্পনা কল্পনা নানা টাল বাহনায়
বিভিন্ন দাতা সংস্থা যখন গেল ফিরে
তখনই ঘোষণা এলো বঙ্গবন্ধুর কন্যার কাছ থেকে
নিজস্ব অর্থায়নেয় পদ্মা সেতু নির্মান হবে দেশে।
যেই কথা সেই কাজ বাস্তবায়নের লক্ষে
পদ্মা সেতুর নির্মানে সর্বশক্তি প্রয়োগ করে
নিজেদের অর্থায়নেই সব কাজ শেষে
এখন অপেক্ষায় ঐতিহাসিক মাহেন্দ্রক্ষণে।
একটি স্বপ্ন দেখেছিলেন রাষ্ট্র নায়ক শেখ হাসিনা
যেই স্বপ্নের সাথে মিশে ছিলো ২১ টি জেলার
সকল ধর্ম বর্ণ আর অগনিত মানুষের
ভাগ্য উন্নয়নের আর রাজধানী ঢাকার
সাথে যোগাযোগের শেষ ঠিকানা।
সেই স্বপ্নের নাম ছিলো পদ্মা সেতু।
যা ছিলো আমাদের সকলের স্বপ্ন
তাই আজ শেখের বেটির কারণে
বাস্তবে রুপ নিলো।
স্বপ্ন আজ আর কোনো স্বপ্ন নয়
সবই আজ বাস্তব।
বিশ্ব দেখলো
অবাক দৃষ্টিতে তাকিয়ে রইল
বাঙালি বীরের জাতি
জয়ই তাদের লক্ষ
পিছিয়ে যাওয়ার নয়
সহজেই হার মানার নয়
অবশেষে সোনার বাংলায়
সোনার ফসল ফললো
স্বপ্নের সেতুর বাস্তবায়নই হলো।
কী অসীম সাহস আর দূরদর্শী চিন্তা চেতনা
অসাধ্য কে সাধন করার মহান ইচ্ছে বাসনা
অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রায় দেশকে তুলে ধরার লক্ষেই
আবেগ উচ্ছ্বাস আর স্বপ্নের বাস্তবায়নই হলো তবে।
অপেক্ষার পালা খুব শীঘ্রই শেষ হবে
২৫ জুনে পদ্মা সেতুর উদ্ভোধনের দিনে
বাংলাদেশে উৎসব বয়ে যাবে
সরাসরি ১৫ লক্ষ মানুষ যোগ দিবে।
স্বপ্নের পদ্মা সেতু দিয়ে গাড়িতে চড়ে
সেতুর আনুষ্ঠানিক শুভ উদ্ভোধন হবে
রাষ্ট্র নায়ক বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার
ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় স্বপ্নই আজ বাস্তব হলো দেশে।