বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের উপর হামলা ও শিক্ষকদের সাথে অসদাচরণের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

প্রকাশিত: ৪:৫৬ অপরাহ্ণ , নভেম্বর ২৩, ২০২১

শেখ সায়েরা খাতুন মেডিকেল কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী কর্তৃক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি)
শিক্ষার্থীদের উপর অতর্কিত হামলা, শিক্ষকদের সাথে অসদাচরণের বিচার, ও জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণের দাবিতে মানববন্ধন করেছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) দুপুর ১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে বিভিন্ন বিভাগের প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিতিতে মানববন্ধনটি অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় ইএসডি বিভাগের শিক্ষার্থী মো: ইসিয়াক আহমেদ অন্তর বলেন, “শেখ সায়েরা খাতুন মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষসহ শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীরা পরিকল্পিতভাবে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উপর হামলা চালায়। শুধু তাই নয় আহত অবস্থায় শিক্ষার্থীদের খুলনা মেডিকেল নিয়ে যাওয়া হলে তারা চিকিৎসা দিতে রাজি হয়নি। খুলনা মেডিকেলের ডাক্তারদের ইমেইল করে চিকিৎসা দিতে না করেন শেখ সায়েরা খাতুন মেডিকেল কর্তৃপক্ষ। খুলনা মেডিকেলে আহত সায়েমকে ভর্তি করা হলেও চিকিৎসার অবহেলার কারণে পরবর্তীতে আমরা পাইভেট মেডিকেলে ভর্তি করেছিলাম। গতকাল রাতে তার অপারেশন করা হয়।”
আইন বিভাগের ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মো: নাইম হোসেন বলেন, “তোরা মরে গেলে দেশের কিছু হবে না। কিন্তুু আমাদের শিক্ষার্থীরা মরে গেলে দেশের অনেক ক্ষতি হবে-এমন সব কথা বলেন শেখ সায়েরা খাতুন মেডিকেলের হল প্রভোস্ট। এই কথার তীব্র নিন্দা জানাই। সেই সাথে কথাটি প্রত্যাহার করার আহবান জানাচ্ছি নতুবা আমরা আরোও তীব্র কর্মসূচি বাস্তবায়ন করবো।”

এসময় তিনি বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ এবং শেখ সায়েরা খাতুন মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থী কর্তৃক হামলা ও অসদাচরণের বিচারের দাবি জানান।

প্রসঙ্গত, ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে রবিবার (২১ নভেম্বর) রাতে বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থী এবং মেডিকেল কলেজ শিক্ষার্থীদের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষক, পুলিশ, সংবাদকর্মীসহ প্রায় অর্ধ শতাধিক শিক্ষার্থী আহত হয়।