১২-১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া হবে

প্রকাশিত: ২:৫০ অপরাহ্ণ , নভেম্বর ১, ২০২১

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মণি এমপি বলেছেন, বাংলা, ইংরেজি, মাদরাসাসহ সব মাধ্যমের ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী সব শিক্ষার্থীকে টিকা দেওয়া হবে। শুরু হওয়া টিকা কার্যক্রমে শিক্ষার্থীদের কোনো সমস্যা হবে না। সমস্যা হলেও তাদের জন্য ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

রাজধানীর মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজে সোমবার (১ নভেম্বর) সকালে ১২ থেকে ১৭ বছরের শিক্ষার্থীদের ফাইজারের টিকা কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

অভিভাবকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী টিকার জন্য শীতাতপ নিয়ন্ত্রক কক্ষে ব্যবস্থা করার জন্য সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকেও ধন্যবাদ জানান। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এমপি উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, করোনা নিয়ন্ত্রণে না থাকলে সবকিছু থেমে যায়। সবার সহযোগিতায় করোনা নিয়ন্ত্রণে আমরা দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে শীর্ষে ও বিশ্বে ২৬তম অবস্থানে রয়েছি। আমাদের সবার স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে, মাস্ক পরতে হবে। ৮২ লাখ ফাইজার টিকা আছে। ১২ থেকে ১৭ বছরের জন্য মোট টিকা লাগবে ৩ কোটি। নিশ্চিত আছে ২ কোটি। ইতোমধ্যে প্রায় পৌনে ৬ কোটি টিকা দেওয়া হয়েছে। দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে প্রায় ৩ কোটি।

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিকভবে দেওয়া টিকায় ভালো ফল পাওয়া গেছে। ঢাকার আটটি স্কুলে টিকা কার্যক্রম শুরু করেছি আমরা। প্রতিদিন প্রতি কেন্দ্রে পাঁচ হাজার করে আটটি কেন্দ্রে ৪০ হাজার টিকা দেওয়া হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তালিকা অনুযায়ী টিকা দেওয়া হচ্ছে। ১৪ নভেম্বর পরীক্ষার আগে সব শিক্ষার্থীকে টিকা দেওয়া সম্ভব না হলেও পর্যায়ক্রমে চলবে। ১২ বছরের নিচে এখনই কাউকে টিকা দেওয়া হবে না। তবে ড্রপআউট হোক আর যেই হোক, সবার টিকা প্রয়োজন, ব্যবস্থা করা হবে।