আলবিদা অভিমানী ত্যাগী নেতা

প্রকাশিত: ৮:৩৪ পূর্বাহ্ণ , মার্চ ৭, ২০২১

উনার বাড়িতে যেদিন হামলা হচ্ছিল , উনি বিদেশ থেকে বসে অনলাইনে সব অবলোকন করছিলেন। আর স্বজনদের জন্য কান্না আর দোয়া করা ছাড়া কিইবা করার ছিল!
আমাদের মতো ছোট মানুষদের বলেছেন এ নিয়ে সাহস করে লিখতে।পারলে চোখকান খোলা রাখতে- একসময় বলতে পারবেন কিছু । ভাঙচুরের ছবিতে ইনবক্স ভরে যেত !
উনার জীবিত অবস্থায় আমরা যারা মায়াকান্নায় ভাসছি যদি দুটা লাইন লিখতাম হয়তো গায়ের চামড়া থাকতো না, হয়তো হাসির খোরাক হোতাম ফেসবুক চাপাবাজদের হতে।
আজ আমাদের কারো কিছু হবে না; হাসি তো নয়ই! কারণ তিনি আজ এই পৃথিবী থেকে জনম জনমের বিদায় নিয়েছেন! সবার মুখে ইন্নালিল্লাহ ! বেহেশত কামনা !
মৃত্যু কেন এমন ? এতো মায়া! এতো ভালবাসা ! এতো আবেগ! এতো প্রশংসা ! এতো সন্মাণ ?

রাজনীতির প্যাচে থাকলে প্রাণ থাকতে তুচ্ছ; প্রাণের ভয়ে পালিয়ে থাকতে হয় এই সুন্দর ভূবনের স্বাভাবিক চলাচল হতেও! জীবন থাকতে কদর নেই, নেই গুরুত্ব !
দেখুন, যার লেখা নিয়ে চিন্তা হতো এক মিনিট হলেও ; আজ আপনাকে নিয়ে লিখলাম একটুকু। বেঁচে থাকলে খুশি হতেন আর নিশ্চয়ই ট্যাগ চাইতেন।