ইতালিতে অব্যাহত সংক্রমণ, মৃত্যু ৬৪ লাখ ছাড়াল আজ

প্রকাশিত: ১০:১৮ পূর্বাহ্ণ , ডিসেম্বর ১৩, ২০২০

ইউরোপের দেশ ইতালিতে উল্লেখযোগ্য হারে সুস্থতা বাড়লেও অব্যাহ রয়েছে সংক্রমণ। একই সাথে প্রাণঘাতি ভাইরাসটির দ্বিতীয় দফা আঘাতে থেমে নেই প্রাণহানিও। গত একদিনেও সাড়ে ৬শ’ মানুষের প্রাণ কেড়েছে ভাইরাসটি। এতে করে মৃতের সংখ্যা ৬৪ হাজার ছাড়িয়েছে। 

ইতালির স্বাস্থ্য বিভাগের বরাত দিয়ে বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডমিটারের নিয়মিত পরিসংখ্যানে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ১৯ হাজার  ৯০৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এতে করে আক্রান্তের সংখ্যা ১৮ লাখ ২৫ হাজার ৭৭৫ জনে দাঁড়িয়েছে। নতুন করে প্রাণ হারিয়েছেন ৬৪৯ জন। ফলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬৪ হাজার ৩৬ জনে ঠেকেছে।

অপরদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতা লাভ করেছেন ২৪ হাজার ৭২৮ জন রোগী। এতে করে বেঁচে ফেরার সংখ্যা ১০ লাখ ৭৬ হাজার ৮৯১  জনে পৌঁছেছে।

এদিকে দ্বিতীয় দফায় করোনা ভয়াবহ রূপ নেয়ায় গত ৬ নভেম্বর জারি করা লকডাউন আবারও বাড়ানো হয়েছে। একই সঙ্গে স্বাস্থ্যবিধি মানার ক্ষেত্রে আরও কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার।

ক্রিসমাস ও নববর্ষের মধ্যে সংক্রমণ বৃদ্ধির আশঙ্কায় গত বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর) নতুন বিধি নিষেধ আরোপ করা হয়। মধ্যরাতে আগের মতোই চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

ইতালির প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী জিউসেপ্পে কন্তে বলেছেন, ‘নতুন বিধি নিষেধ আগামী ৬ জানুয়ারি পর্যন্ত কার্যকর থাকবে। এ সময় কেবলমাত্র ২০ অঞ্চলে চিকিৎসা ও জরুরি সেবা চালু থাকবে।’

এর আগে প্রথম ঢেউয়ে গত মার্চে সর্বোচ্চ মৃত্যু দেখেছিল ইউরোপের দেশটি। নতুন করে তাণ্ডব বাড়ায় ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে ব্রিটেনের পরেই সর্বোচ্চ প্রাণহানি এখন ইতালিতে। দেশটিতে করোনায় প্রাণ হারাদের মধ্যে প্রায় অর্ধেকই উত্তরাঞ্চলীয় শহর লম্বার্ডিয়ার।

এ পর্যন্ত বিশ্বের ২১৮টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস। এখন পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬ লাখ ১১ হাজার প্রায়। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাণ হারিয়েছেন ১০ হাজার ৩২৭ জন।

একই সঙ্গে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৬ লাখ ৩৫ হাজারের বেশি মানুষ। ফলে আক্রান্তের সংখ্যা ৭ কোটি ২০ লাখ ৯০ হাজারে দাঁড়িয়েছে। যদিও সুস্থতা লাভ করেছেন সাড়ে ৫ কোটি রোগী।