পীরগঞ্জে যৌতুকের জন্য নির্যাতন-আটক ১

এন এন রানা এন এন রানা

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৫:১৭ অপরাহ্ণ , ডিসেম্বর ২, ২০২০

ছবি: পীরগঞ্জ থানার  ও আটক সফিকুল ইসলাম 

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলায় এক অসহায় গৃহবধূকে যৌতুকের দাবীতে নির্মম নির্যাতন মামলায় পুলিশ মূল আসামী সফিকুল ইসলাম কে আটক করে গত সোমবার জেল হাজতে পাঠিয়েছে।

জানা গেছে, উপজেলার বৈরচুনা গ্রামের আব্দুল বাকি’র মেয়ে রোজিনা আখতারের সাথে ৫ নং সৈয়দপুর ইউপি’র শিবপুর গ্রামের ধনু মোহাম্মদের ছেলে সফিকুলের ৪ বছর আগে রেজিষ্ট্রি কাবিনমূলে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকলোভী স্বামী নানা বাহানায় যৌতুক দাবী করে ও কয়েক দফায় প্রায় ৪ লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেয়।
এর পরে আবারো ৫ লক্ষ টাকার দাবীতে সফিকুল ও তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সহযোগীতায় গৃহবধু রোজিনাকে বেধড়ক মারপিট করে বাড়ী থেকে বের করে দেয়। মারপিটে গুরুতর আহত হয়ে জখমী চিকিৎসার জন্য পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি হয় ক্ষতিগ্রস্ত গৃহবধু।

২১ নভেম্বর থেকে ২৫ নভেম্বর পর্যন্ত চিকিৎসার পর কিছুটা সুস্থ হলে ২৯ নভেম্বর স্বামী সফিকুল, তার সহযোগী সাদিকুল, সমিজুল, ধনু মোহাম্মদ ও সাবিনার বিরুদ্ধে ২০০০ সালের (সংশোধিত ২০০৩) নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ১১(গ)/৩০ ধারায় একটি মামলা রুজু করেন।

যার নং ১৬। মামলার তদন্তকারী অফিসার মো.জাহাঙ্গীর আলম, মামলার পর অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামী সফিকুল ইসলাম কে ৩০ নভেম্বর গ্রেপ্তার করে ঠাকুরগাঁও জেল হাজতে প্রেরন করেছেন। বর্তমানে অসহায় গৃহবধু আশ্রয়হীন হয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছেন।