পাঁচবিবিতে জমিজমা নিয়ে পূর্ব শত্রুতার জের:নিরাপত্তার জন্য সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত: ৫:২২ অপরাহ্ণ , ডিসেম্বর ২, ২০২০
জমিজমা সংক্রান্ত পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রভাবশালীদের ভয়ে নিজ বাড়ি থেকে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বলে অভিযোগ করে পরিবারের নিরাপত্তার জন্য সংবাদ সম্মেলন করেন ভূক্তভোগী পরিবার।

জমিজমা সংক্রান্ত পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রভাবশালীদের ভয়ে নিজ বাড়ি থেকে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বলে অভিযোগ করে পরিবারের নিরাপত্তার জন্য সংবাদ সম্মেলন করেন ভূক্তভোগী পরিবার।
বুধবার দুপুরে জয়পুরহাট জেলা প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে ভূক্তভোগী পরিবারের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার চাঁদপুর গ্রামের মৃত জামাল উদ্দিনের ছেলে আব্দুল মোত্তালিব আকন্দ।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, মোত্তালিবের স্ত্রী মালেকা বেগম, নাবালক ছেলে মাহী, পাশর্^বর্তী গ্রামের আনোয়ার হোসেনসহ বেশ কয়েক জন গ্রামবাসী।
লিখিত বক্তব্যে মোত্তালিব অভিযোগ করেন, “একই গ্রামের (মৌজা) ৫৯ নম্বর খতিয়ানের ১১৯, ১৪৮ ও ৩২৫ নম্বর দাগে পৈত্রিক সূত্রে ও কবলা খরিদ মূলে আমার মালিকানাধীন জমির পরিমান ৪২ শতক। সেখানে আমার বসত বাড়িসহ আম বাগান করে পরিবার পরিজন নিয়ে শান্তিপূর্নভাবে বসবাস করে আসছিলাম ।এ অবস্থায় আমার ওই সম্পত্তি জবর দখল করার লালসায় পরিবার-পরিজনসহ আমাকে উচ্ছেদ করতে প্রভাবশালীরা আমাকে নানা ভাবে হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছিলেন। এরই ধারাবাহিকতায় গত ২২ নভেম্বর প্রকাশ্য দিবালোকে প্রভাবশালী একই গ্রামের আব্দুল মতিন, মতিনের স্ত্রী তানজিমা খানম (শিমু), ছেলে মেসকাতুর রহমান (সম্পদ), দমদমা গ্রামের শহিদুল ইসলামের স্ত্রী শিউলী বেগম, দিবাকরপুর গ্রামের আবুল বাশারের স্ত্রী বিউটি আক্তার ও তাদের দলবল দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমার বাড়ির দিকে এগিয়ে আসলে আমি ও আমার পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা প্রাণের ভয়ে বাড়ির মুল ফটক বন্ধ করে দিয়ে বাড়ির ভেতরে লুকিয়ে থাকি। অভিযুক্তরা আমার বাড়ির মূল ফটকে ধাক্কা ও লাথি মারার পর আমার বাগানের আমগাছগুলো কেটে ফেলে আমাকে প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে চলে যান। পরদিন আবারো প্রকাশ্য দিবালোকে তারা আমার বাড়িতে হামলা চালিয়ে আমার বাগানের বেড়ায় আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ফেলেন ও বেশ কিছু গাছ উপরে ফেলে আমাকে মারপিট করাসহ আবারো প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে চলে যান।”
মোত্তালিব আরো জানান,এসব নাশকতার ঘটনার জন্য তিনি পাঁচবিবি থানা পুলিশকে অবহিত করেন। এর আগেও প্রায় একই ধরনের ঘটনার জন্য তিনি ওই প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে গত বছর ১৮ জানুয়ারী জয়পুরহাট আমলী আদালতে ১০পি/১৯ (পাঁচ) নম্বর মামলা ও ১৭মে জয়পুরহাট নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রে আদালতে ৩৮পি/১৯ (পাঁচ) নম্বর মামলা করেন।
মামলাগুলি তুলে নেওয়াসহ বাড়িঘর ছেড়ে অন্যত্র চলে যাওয়ার জন্য মোত্তালিবকে বাধ্য করতে অভিযুক্তরা বারবার তার বাগান, বাড়িঘর ও পরিবারের উপর হামলা চালিয়েছে অভিযোগ করে তিনি ক্রন্দনরত অব্স্থায় বলেন,“ নিরপত্তার কারনে আমার বিশ^বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত মেয়ে ও নবম শ্রেনীতে অধ্যয়নরত ছেলেকে অন্যত্র সরে রাখতে বাধ্য হয়েছি।”
এরুপ পরিস্থিতিতে মেত্তালিব পরিবার-পরিজন নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে তিনি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তার সম্পত্তি রক্ষাসহ নিরাপত্তা লাভের জন্য প্রশাসনের সহযোগীতা চেয়েছেন।
এ ব্যাপারে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে অভিযুক্তদের পক্ষে আব্দুল মতিনের স্ত্রী তানজিমা খানম (শিমু) অভিযোগ অস্বীকার করেন।’
পাঁচবিবি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মনসুর রহমান বলেন,‘ মোত্তালিবের পরিবারের উপর হুমকি ও হামলার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।’