পত্রিকায় অসহায়ের খবর দেখেই মানবতার হাত বাড়িয়ে দিতে ছুটে যান রাজু আহমেদ

প্রকাশিত: ২:৪০ পূর্বাহ্ণ , নভেম্বর ১, ২০২০

পত্রিকায় অসহায় বৃদ্ধের খবর দেখেই নিজ অফিসের কাজ ফেলে মানবতার হাত বাড়িয়ে দিতে কুমকুমারীতে ছুটে যান রাজু গ্রুপের চেয়ারম্যান ও যুবলীগ নেতা মোঃ রাজু আহমেদ । অসহায় বৃদ্ধ গফুর মিয়াকে খুঁজে বের করে ১০ হাজার টাকা মানবিক সাহায্য দেন তিনি ।  ( ভিডিও )

উল্লেখ্য, আশুলিয়ার কুমকুমারি এলাকায় বসবাসরত গফুর মিয়া নামে এক ৬০ বছর বয়সী বৃদ্ধ তার অসুস্থ স্ত্রী নিয়ে অর্ধাহারে অনাহারে দিন কাটাচ্ছিলেন । তিনি সিটি ইউনিভার্সিটির ফুল বাগানে মালির কাজ করতেন । দেশে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হলে তার সেই কর্মক্ষেত্রটি বন্ধ হয়ে যায় । সেসময়ে আশুলিয়ার সকল মিল ও কল কারখানা গুলোও বন্ধ হয়ে যায় । এর পর এলাকার গার্মেন্টস ও কলকারখানা গুলো চালু হলে সেগুলোতে চাকরি নেয়ার জন্য ঘুরতে থাকে গফুর মিয়া । কিন্তু সে বৃদ্ধ থাকায় কোথাও তাঁর চাকরি জুটিনি । একটি কাজ জুগিয়ে দেয়ার জন্য এলাকার বিভিন্ন জনের কাছে আকুতি মিনতি করেও কোন সুফল পায়নি ৬০ বছর বয়সী বৃদ্ধ গফুর মিয়া । এনিয়ে একটি সংবাদ প্রকাশ করেন স্থানীয় সাংবাদিক এস এম শফিক । সংবাদটি রাজু গ্রুপের চেয়ারম্যান ও যুবলীগ নেতা রাজু আহমেদ দেখতে পেয়ে কুমকুমারীতে ছুটে যান তিনি । অসহায় বৃদ্ধ গফুর মিয়াকে খুঁজে বের করেন তিনি । গফুর মিয়া ৪/৫ হাজার টাকা পুঁজি পেলে ঝালমুড়ির ব্যবসা করে জীবন জীবিকা নির্বাহ করতে পারবে বলে জানালে রাজু আহমেদ তাহাকে ১০ হাজার টাকা মানবিক উপহার দিয়ে গফুর মিয়াকে ঝালমুড়ির ব্যবসা শুরু করতে বলেন এবং পরবর্তীতে আরো সহোযোগীতা করার আশ্বাস দেন । এসময় তিনি উপস্থিত সবার কাছে নিজের জন্য এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য , দুর্যোগ ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান এর জন্য, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান ও সম্পাদকের জন্য দোয়া চেয়ে বলেন, রিজিকের মালিক আল্লাহ । আমি রাজু খেয়ে বাঁচলে এলাকার অসহায় মানুষ গুলো না খেয়ে থাকবেনা ইনশাআল্লাহ । আমার ঘরে সর্বশেষ এক কেজি চাল থাকলে সেই চালও অসহায়দের সাথে নিয়ে ভাগ করে খাব । আমরা যদি সবাই এমন অসহায় গফুর মিয়াদের পাশে দাঁড়াই তাতে আমরা কখনো গরীব হয়ে যাবোনা । দান করলে আল্লাহ ধন সম্পদ আরো বাড়িয়ে দেন।

এদিকে এমন দুঃসময়ে ১০ হাজার টাকা সাহায্য পেয়ে গফুর মিয়া আবেগ আপ্লুত হয়ে রাজু আহমেদ এর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং তাহার জন্য দোয়া করেন । গফুর মিয়া তার চরম দুর্দশাগ্রস্ত সময়ে জীবিকা নির্বাহের নির্ভরতার ভরসা পেল । অন্ধকার অমাবস্যায় যেন পূর্ণিমার আলো দেখলো । বৃদ্ধ বয়সে স্বনির্ভরতার পথ তৈরি হল তার ।

অসহায় বৃদ্ধ গফুর মিয়ার পাশে দাঁড়ানোর জন্য রাজু আহমেদ এর ভূয়শী প্রশংসা করেন এবং তাহার প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন এলাকাবাসী । গফুর মিয়া কে সাহায্য করার সময়ের একটি স্থির চিত্র আজকের আশুলিয়ার ফেসবুক পেইজে আপলোড দিলে সেখানে সাভার ও আশুলিয়ার অনেকেই কমেন্ট বক্সে রাজু আহমেদ-এর প্রশংসা করেন এবং তার দীর্ঘায়ু কামনা করেন ।

গৌরিপুরের চাঁনগাঁও এলাকার জাহিদ নামের একজন কমেন্টে লিখেন, রাজু আহমেদ একজন মানবিক প্রাণের মানুষ । তিনি আমাদের আশুলিয়ার গর্ব । আজ তিনি বটতলার বয়োজ্যেষ্ঠ তইয়ব আলীকেও ৫ হাজার টাকা মানবিক উপহার দিয়েছেন । গতকাল আশুলিয়ার আজিজুল ইসলাম নামের একজন পঙ্গু লোককে ২৫ হাজার টাকা দিয়েছেন । প্রতিদিনই আশুলিয়ার দানবীর খ্যাত রাজু গ্রুপের চেয়ারম্যান ও যুবলীগ নেতা মোঃ রাজু আহমেদ এর কাছ থেকে অনেক অসহায় মানুষ নগদ অর্থ সহায়তা পাচ্ছে ।

রাজু আহমেদ মানবতার এক অনন্য দৃষ্টান্ত । করোনাকালীন সময়ে তিনি লক্ষাধিক মানুষকে মানবিক উপহার হিসেবে খাদ্য সামগ্রী, স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী, শাড়ি লুঙ্গি পাঞ্জাবী ও নগদ অর্থ সহায়তা দিয়েছেন ।