মওলা আলী শেরে খোদার নাম কিয়ামত পর্যন্ত জারি থাকবে -মেয়র আইয়ুব বাবুল

এস.এম.এ জুয়েল এস.এম.এ জুয়েল

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ১:০৭ পূর্বাহ্ণ , এপ্রিল ১৪, ২০২৩

পটিয়া আমির ভান্ডার দরবার শরীফের আন্জুমানে আশেকানে হাছনাত মওলা আমির ভান্ডারী শাহ ফখরুদ্দিন এর উদ্যোগে শেরে খোদা মওলা আলী (ক:) শীর্ষক আলোচনা সভা আজ আমির ভান্ডার হাছনাত মন্জিল শাহী ময়দানে অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন শাহসূফি সৈয়দ ফখরুদ্দিন শাহ আমির ভান্ডারী (মঃ জিঃ আলী)। প্রধান অতিথি ছিলেন পটিয়া পৌরসভার মেয়র আইয়ুব বাবুল। বিশেষ অতিথি ছিলেন আমির ভান্ডার দরবার শরীফের সকল আউলাদে পাক ও হাফেজ নগর দরবার শরীফের সাজ্জাদানশীন সৈয়দ আশেকুর রহমান হাফেজ নগরী, শাহছফি সৈয়দ ফরিদুল আনোয়ার হাফেজ নগরী, প্রেস ক্লাব সভাপতি নুরুল ইসলাম, সাবেক সভাপতি এস এম এ কে জাহাংগীর, অধ্যাপক রওশনগীর আমিরী, আমিরুল আউলিয়া সুন্নিয়া দাখিল মাদরাসার সুপার মৌলানা আবুল মোকাররম আমিরী, শাহজাাদা আসাদুজ্জামান আমিরী তানিম, এড. হাসান আলী আন্জুমানের আহবায়ক মনজুরুল আলম, সদস্য সচিব মৌলানা মুহাম্মদ আবদুর রহমান, স্বাগত বক্তব্য রাখেন শাহজাদা জিলক্বদ জঙ্গী শাহ আমিরী। মোনাজাত পরিচালনা করেন বড় শাহজাদা মুফতি ছৈয়দ মুশকিল কোশা আমিরী। এসময় মেয়র আইয়ুব বাবুল বলেন, ইসলামের প্রাথমিক লগ্নে ইসলামের ভীত রচনা ছিল খুবই কঠিন। এ সময়কালে কাফেররা ইসলামের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে ছিল। তখন কাফেরদের বিরুদ্ধে সংগঠিত সকল সম্মুখ যুদ্ধে হজরত মওলা আলী (রা:) জীবন বাজি রেখে যুদ্ধ করেছিলেন। এবং প্রায় যুদ্ধেই ইসলামের বিজয় হয়েছিল। বিশ্বের ইতিহাসে একক ও কৌশলী যোদ্ধা হিসেবে ও খোলাফায়ে রাশেদীনের একজন হিসেবে মওলা আলী শেরে খোদার নাম কিয়ামত পর্যন্ত জারি থাকবে। তার দৌহিত্র হজরত ইমাম হোসাইন (রঃ) ইসলামকে পুনরুজ্জীবিত করতে নিজের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন। বলতে গেলে তার পরিবারই ইসলাম কে জিন্দা করেছেন। অন্যায় ও অনৈতিকতার সাথে আপস করেননি। তাই যতদিন এই পৃথিবী থাকবে ততদিন তার ও পরিবারের আত্ম ত্যাগ ও সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্টার লড়াইয়ে অনুপ্রেরণা উৎস হযে থাকবে। সব শেষে আয়োজিত মোনাজাতে দেশ জাতি ও মুসলিম উম্মাহর সুখ শান্তি ও সমৃদ্বি কামনা করে মোনাজাত পরিচালনা করা হয়।

Loading