মনোহরদীতে জমিজমা নিয়ে বিরোধ, হামলা ভাংচুর ও লুটপাট, আহত১

প্রকাশিত: ৫:২৪ পূর্বাহ্ণ , জুলাই ৬, ২০২০
সারোয়ার জাহান আরিফ,ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি : নরসিংদীর মনোহরদীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বসত বাড়ীতে হামলা ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। হামলায় আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন হালিমা বেগম।
 
গত শনিবার রাত ৯ টায় উপজেলার কৃষ্ণপুর ইউনিয়নের খালিয়াবাইদ গ্রামের সোহাগ মিয়ার বাড়ীতে হামলা চালায় প্রতিপক্ষ নুরুল ইসলাম গং। এ হামলা ও লুটপাটের ঘটনায় সোহাগ মিয়া বাদি হয়ে মনোহরদী থানায় চার জনকে আসামি করে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।
 
অভিযোগে জানা যায়, দীর্ঘ দিন ধরে সোহাগ মিয়ার সাথে প্রতিপক্ষ নুরুল ইসলাম (৪৫) ও লিটন (৩৫) এর জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল । গত শনিবার রাতে বাড়ীর সীমানা সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে প্রতিপক্ষ নুরুল ইসলামের নেতৃত্বে লিটন ও মাসুদ মিয়াসহ আরো ৫/৬ জন ধারালো অস্ত্র ও লাঠি সোঠায় সজ্জিত হয়ে সোহাগ মিয়ার বাড়িতে হামলা করে।
 
হামলাকারীরা সোহাগ মিয়ার ভাবী হালিমাকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যার চেষ্টা চালায়। এ ছাড়াও হামলাকারীরা সোহাগ মিয়াসহ পরিবারের অন্যন্য লোকজনকে পিটিয়ে মারাত্বক ভাবে আহত করে। পরে নুরুল ইসলামের সহায়তায় সোহাগ মিয়ার বাড়ির মেইন গেইট ও দরজা জানালা ভাংচুর করে ঘরের ভেতর প্রবেশ করে আলমারীর ড্রয়ারে থাকা স্বর্ণের তিনটি হার, দুইটি বালাসহ অন্যান্য আরো স্বর্ণের গহণাদি লুটে নেয়। সাথে আলমারিতে থাকা নগদ এক লক্ষ দশ হাজার টাকাও হামলাকারীরা নিয়ে যায়।
 
এ সময় হামলাকারীরা সোহাগ মিয়াকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে তার বাড়িতে এবং নিকটবর্তী দোকানে তালা লাগিয়ে চলে যায় । এ ঘটনায় সোহাগ মিয়ার ভাবী হালিমার শারিরিক অবস্থার অবণতি হলে দ্রুত তাকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। হালিমার বর্তমান অবস্থা শঙ্কটাপন্ন। এ দিকে প্রাণনাশের হুমকি নিয়ে সোহাগ ভয়ে দিন কাটাচ্ছেন।