রাশিয়ায় বিবিসি, ডয়েচে ভেলে ও ভয়েস অব আমেরিকা নিষিদ্ধ

প্রকাশিত: ১০:২৩ অপরাহ্ণ , মার্চ ৪, ২০২২

ইউক্রেনে রুশ অভিযানের পর থেকে রাশিয়ায় স্বাধীন সংবাদমাধ্যমের ওপর নানা ধরনের চাপ আসছে। এরই মধ্যে ভুয়া সংবাদ পরিবেশনের অভিযোগে বিবিসির রুশ ভাষা বিভাগের ওয়েবসাইট রাশিয়ায় নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

পাশাপাশি ডয়েচে ভেলে, ভয়েস অব আমেরিকা, রেডিও লিবার্টি এবং মেডুজা মিডিয়া আউটলেটের মতো প্রতিষ্ঠানগুলোকেও রাশিয়ায় নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

শুক্রবার রুশ টেলিযোগযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা অভিযোগ করেছে যে এই চ্যানেলগুলি থেকে ‘কট্টরপন্থায় উসকানি দেয়া হচ্ছে, রুশ নাগরিকদের অপমান করা হচ্ছে, জন শান্তিকে হুমকির মুখে ফেলা হচ্ছে এবং বিক্ষোভকে উসকে দেয়া হচ্ছে।’ওদিকে, রাশিয়ার সংসদের নিম্ন কক্ষ একটি নতুন আইন পাশ করেছে তাতে সশস্ত্র বাহিনীর ওপর ‘ফেক নিউজ’ বা ভুয়া খবর প্রচারকে ফৌজদারি অপরাধ হিসেবে গণ্য করা হয়েছে।

এজন্য বড় অর্থের জরিমানা এবং সর্বোচ্চ ১৫ বছরের কারাদণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে। রাশিয়ার বিরুদ্ধে কেউ নিষেধাজ্ঞার ডাক দিলে তারও বিচার করার ব্যবস্থা রয়েছে এই আইনে।

রুশ সংবাদমাধ্যমকে ইউক্রেনের আগ্রাসনকে বিশেষ সামরিক অভিযান হিসেবে বর্ণনা করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

রাশিয়ার টেলিযোগযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, এইসব ওয়েবসাইটের তথ্যপ্রবাহে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। নিয়মিত ইচ্ছাকৃতভাবে মিথ্যা তথ্য ছড়ানোর কারণেই এই পদক্ষেপ বলে জানিয়েছে তারা।

বিবিসি জানায়, রুশ সংবাদমাধ্যমকে ইউক্রেনের আগ্রাসনকে বিশেষ সামরিক অভিযান হিসেবে বর্ণনা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তাছাড়া, রাশিয়ার পার্লামেন্টের নিম্ন কক্ষেও একটি নতুন আইন পাস হয়েছে।

এদিকে রুশ টেলিযোগযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা কট্টরপন্থাকে উস্কানি দিচ্ছে বলে অভিযোগ এনে বৃহস্পতিবার রাশিয়ার স্বাধীন সংবাদমাধ্যম টিভি রেইন সম্প্রচার বন্ধ করে দেয়।