আত্রাইয়ে সন্ত্রাসী হামলার শিকার সাংবাদিক ফাহিম

প্রকাশিত: ১২:৫২ পূর্বাহ্ণ , জুন ১৭, ২০২০
এইচ এম হুমায়ুন কবির:
সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়ে মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন দৈনিক নতুন দিগন্ত ও জয়যাত্রা টেলিভিশনের আশুলিয়া প্রতিনিধি এবং বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম, আশুলিয়া কমিটির প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সিফাত মাহমুদ ফাহিম।
 
আজ ১৬ জুন সকাল সাড়ে ১১টার দিকে তার গ্রামের বাড়ি নওগাঁর আত্রাই সেভেন স্টার শপিং কমপ্লেক্সের সামনে প্রকাশ্যে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসি সোহেল ও এনামুলের নেতৃত্বে একদল দুর্বৃত্ত হামলার ঘটনাটি ঘটায়। এ সময় আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে গেলে স্থানীয়দের সহায়তায় মুমূর্ষ অবস্থায় ফাহিমকে স্থানীয় একটি হসপিটালে ভর্তি করা হয়। হামলাকারীরা তাকে লোহার রড দিয়ে মারধর করে ক্যামেরা ও মোবাইল ফোনটি ভেংগে ফেলেন। সংবাদ প্রচার সংক্রান্ত বিরোধ ও পূর্ব শত্রুতার জের ধরে হামলাকারীরা তরুণ এই সাংবাদিককে হত্যার উদ্দেশ্যে আক্রমণ করে বলে জানান আক্রমণের শিকার সাংবাদিক শিফাত মাহমুদ ফাহিম।
 
এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও দোষী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবী জানিয়েছেন বাংলাদেশ সাংবাদিক ফোরাম ওমানের সভাপতি এইচ এম হুমায়ুন কবির ও বিএমএসএফ’র কেন্দ্রীয় সভাপতি শহীদুল ইসলাম পাইলট ও সাধারণ সম্পাদক আহমেদ আবু জাফর সহ বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
পাশাপাশি কোনরকম কালক্ষেপণ ছাড়াই অপরাধীদের গ্রেফতারপূর্বক আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিও জানান সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।
 
হামলার বিষয়ে জানতে চাইলে আহত সাংবাদিক
ফাহিম জানান একটি সরকারী কাজের তথ্য চাওয়ায় ভুয়া ডাক্তার হামিদুল ও মামুনের নির্দেশে হামলার ঘটনাটি ঘটে।
উল্লেখ্য কথিত এমবিবিএস ডাক্তার হামিদুলের জাল সনদের বিষয়ে সিফাত মাহমুদ ফাহিম টেলিভিশনসহ বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশ করার পর থেকেই হামিদুল বাহিনী তাকে হামলার পরিকল্পনা করে বলে জানা যায়।
 
এদিকে আত্রাই থানার পুলিশ পরিদর্শক মুসলিম উদ্দিন এর সাথে যোগাযোগ করলে জানান হামলার ঘটনার কথা শুনেছি। আমার একজন সাব-ইন্সপেক্টরকে তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছি। পুলিশ পরিদর্শক মুসলিম উদ্দিন তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিতে ব্যবস্থা নেয়ারও আশ্বাস দেন।