মালয়েশিয়ায় ১৯ বাংলাদেশী আটক

প্রকাশিত: ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ , জুন ২৭, ২০২১

মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়েছে দেশটির ইমিগ্রেশন বিভাগ। তারই ধারাবাহিকতায় মার্কেটে অভিযান চালিয়ে ১৯ জন বাংলাদেশীকে আটক করা হয়েছে। সেই সঙ্গে জাতিসংঘের শরণার্থী, ইন্দোনেশিয়া, মিয়ানমার, ভারত ও নেপালের নাগরিকদের মধ্যে থেকে ৫৩ জনকে আটক করেছে দেশটির ইমিগ্রেশন বিভাগ।

স্থানীয় সময় শনিবার (২৬ জুন) ভোরে দেশটির সেলাঙ্গর রাজ্যের পেতালিং জায়ার সেরি কেম্বাংগানের একটি কাঁচাবাজারের হোলসেল মার্কেটে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃতদের মধ্যে ১৯ বাংলাদেশি ছাড়া জাতিসংঘের শরণার্থী (ইউএনএইচসিআর) কার্ডধারী ৩৯, মিয়ানমারের ৯, ইন্দোনেশিয়ার ৩ এবং ভারত ও নেপালের একজন করে রয়েছে।

মালয়েশিয়ার উপ-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দাতুক সেরি ড. ইসমাইল মোহামেদ জানান, গ্রেপ্তারকৃতরা ২০ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে। তাদের বৈধ ভ্রমণ নথি না থাকায় আটক করা হয়েছে। এ ছাড়া করোনার সংক্রমণ রোধে এসব শ্রমিক চলমান লকডাউনের এসওপি অনুযায়ী কাজ করছেন কিনা তা নিশ্চিত করতেই এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
আটককৃত সবাইকে প্রথমে কোভিড-১৯ টেস্ট করা হবে এবং পরে সেলাঙ্গরের ডিটেনশন সেন্টারে পাঠিয়ে দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

এ অভিযানে দেশটির ইমিগ্রেশন পুলিশের পাশাপাশি বাণিজ্য ও ভোক্তাবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের কর্মীরা অংশ নেয়।

এর আগে গত ৬ জুন দেশটির সাইবারজায়ার একটি বিল্ডিং নির্মাণ স্থাপনা থেকে ৬২ বাংলাদেশি এবং ২১ জুন সেলাঙ্গর প্রদেশের মুকিম জেলার ডেংকিল এলাকার একটি নির্মাণ স্থান থেকে ১০২ জন বাংলাদেশিকে আটক করা হয়েছিল।

এদিকে, এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টর আজমান এডাম জানান, পয়লা জুন থেকে ২৫ জুন পর্যন্ত দেশব্যাপী অভিযান পরিচালনা করে বিভিন্ন অপরাধের জন্য ২ দশমিক ৩ মিলিয়ন রিঙ্গিত জরিমানা করা হয়েছে।