পাঁচবিবিতে বিকাশ নম্বর দিয়ে বৈদ্যুতিক মিটার চুরি ॥ আতংকিত কৃষকেরা

প্রকাশিত: ৩:৪৭ অপরাহ্ণ , এপ্রিল ৭, ২০২১
জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে বোরো আবাদ মৌসুমে সংঘবদ্ধ চক্র বিকাশ নম্বর দিয়ে গভীর নলকূপের মিটার চুরি করায় কৃষকেরা আতংকে দিন কাটাচ্ছেন।

জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে বোরো আবাদ মৌসুমে সংঘবদ্ধ চক্র বিকাশ নম্বর দিয়ে গভীর নলকূপের মিটার চুরি করায় কৃষকেরা আতংকে দিন কাটাচ্ছেন।
ভূক্তভোগীরা জানান, সংঘবদ্ধ চক্রটি গভীর নলকূপ ও বিভিন্ন শিল্প কারখানার মিটার চুরি করে নিয়ে যাবার সময় মিটারের স্থানে তাদের বিকাশ নম্বর ও শর্তাবলী দেয়। বিকাশ নম্বরগুলোতে টাকা দিলে চক্রটি পরের দিন মিটার ফেলে দিয়ে যায়। জয়পুরহাট পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি (পবিস) পাঁচবিবি জোনাল অফিস সূত্রে জানা যায়, গত ডিসেম্বর থেকে মার্চ পর্যন্ত উপজেলার আটাপুর, মোহাম্মদপুর, আওলাই ও কুসুম্বা ইউনিয়নের ২২টি গভীর নলকূপের, ৩টি ধান কলের এবং একটি ছ’মিলের মোট ২৬টি মিটার চুরি হয়েছে।

চুরি যাওয়া মিটার মালিকদের মধ্যে কামরুজ্জামান, জহুরুল আলম, চৈতন্য ও মহসিন জানান, সংঘবদ্ধ চক্রদের দাবিকৃত ৪ থেকে ৫ হাজার টাকা তাদের বিকাশ নম্বরে দিয়ে মিটার ফেরৎ পেয়েছেন। বোরো আবাদের ভরা মৌসুমে গভীর নলকূপের মালিকেরা মিটার চুরি বৃদ্ধি পাওয়ায় আতংকিত রয়েছেন।

পবিসের পাঁচবিবি ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার আব্দুল বারী মিটার চুরি ঘটনা স্বীকার করে বলেন, থানা পুলিশের স্বরনাপন্ন হতে বলেছেন ভূক্তভোগীদের।

পাঁচবিবি থানার অফিসার ইনচার্জ পলাশ চন্দ্র দেব বলেন, এ পর্যন্ত ৪/৫টি অভিযোগ পেয়েছেন। সংবদ্ধ চক্রকে শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।