কলকাতায় রেলের বহুতল ভবনে আগুন, নিহত ৯

প্রকাশিত: ৯:১২ পূর্বাহ্ণ , মার্চ ৯, ২০২১

কলকাতার স্ট্র্যান্ড রোডে অবস্থিত ভারতের পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব রেলের একটি বহুতল ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে রেলের ডেপুটি চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজারসহ কমপক্ষে ৯ জন নিহত হয়েছেন। এ কথা জানিয়েছেন কলকাতা পুলিশ কমিশনার সৌমেন মিত্র। 

আনন্দবাজার জানিয়েছে, মৃতদের মধ্যে রেলের ডেপুটি চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজার পার্থসারথি মণ্ডল, দমকলের চার কর্মী, পুলিশের এক অফিসার এবং আরপিএফ-এর একজন রয়েছেন। নয়টি মৃতদেহই এসএসকেএম হাসপাতালে রাখা হয়েছে। এর মধ্যে কয়েকজনের লাশ তাদের পরিবারের সদস্যরা শনাক্ত করেছেন।

সোমবার স্থানীয় সন্ধ্যা ৬.১০ মিনিট নাগাদ রেলের নিউ কয়লাঘাটার বহুতল ভবনের ১৩ তলায় এই আগুন লাগে। দমকলের ১৪টি ইঞ্জিন পৌঁছে প্রায় ৪ ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

অগ্নিকাণ্ডের মৃত্যুবরণকারী প্রত্যেকের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ এবং মৃতদের পরিবার প্রতি একজনকে সরকারি চাকরি দেওয়া হবে বলে ঘোষণা দিয়েছে রাজ্য সরকার।

পুলিশ কমিশনার জানিয়েছেন, তাঁরা (মৃতরা) লিফটে করে উঠতে গিয়েছিলেন। সেখানেই আগুন ঝলসে তাদের মৃত্যু হয়েছে। খুবই দুঃখজনক।

এদিকে দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু জানিয়েছেন, তিনি রাতে দমকল ও পুলিশ অফিসারদের সঙ্গে ১৩ তলায় উঠে নিজে মৃতদেহ দেখে এসেছেন।

তিনি বলেছেন, ‘আমরা উপরে উঠে দেখি, লিফটের মধ্যেই পাঁচ জনের দেহ পড়ে রয়েছে। বাইরে পড়েছিল আরও দু’জনের দেহ। পোশাক দেখে বোঝা গিয়েছে, তাদের মধ্যে চারজন দমকলকর্মী। এ ছাড়াও একজন আরপিএফ এবং একজন হেয়ার স্ট্রিট থানার এএসআই। একজন ব্যক্তিকে চিহ্নিত করা যায়নি।’

এছাড়া এই ঘটনায় আহত হয়ে রেলের দুই কর্মী শিয়ালদহে বি আর সিংহ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি, রাজ্য ফায়ার সার্ভিস মন্ত্রী সুজিত বসু, নগরোন্নায়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক নয়না ব্যানার্জি, কলকাতার পুলিশ কমিশনার সৌমেন মিত্র ও ফায়ার সার্ভিসের ডিজি জাভেদ শামিমসহ পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তারা।

প্রাথমিকভাবে রেল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ১৩ তলায় এসি ফেটে আগুন লাগে। পাশের এলআইসি বিল্ডিং-এর ক্যান্টিন কর্মীরা প্রথম আগুন দেখতে পেয়ে চিৎকার করেন। তখন প্রায় ৫শ’ জন অফিসে ছিলেন।