ফেনী সদর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান আরজুর ইন্তেকাল

প্রকাশিত: ৮:৪৩ অপরাহ্ণ , মার্চ ৫, ২০২১

ফেনী জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, জেলা যুবলীগের সাবেক আহবায়ক ও জেলা আওয়ামী লীগের সদ্য সাবেক সদস্য,ফেনী সদরের ধর্মপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান,এম.আজহারুল হক আরজু শুক্রবার ভাের ৫ টায় হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ করে ঢাকার সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে মৃত্যু বরণ করেন।
আওয়ামী লীগ নেতা ফেনী সদরের ধর্মপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান এম আজহারুল হক আরজুর মৃত্যুতে ফেনী জুড়ে বিরাজ করছে শূন্যতা। তার এ আকস্মিক মৃত্যুতে শােকের ঝড় বইছে ফেনীর রাজনৈতিক, সামাজিক অঙ্গনে। দলমত নির্বিশেষে শােক জানাচ্ছেন ফেনীর আলােচিত এ আওয়ামী লীগ নেতার প্রতি।

তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন ফেনী ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বাের্ডের চেয়ারম্যান সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিম, ফেনী-২ আসনের সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী, ফেনী-৩ আসনের সাংসদ লে: জেনারেল (অব): মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী ও সাবেক সাংসদ আরেক আলোচিত নেতা জয়নাল আবেদীন হাজারী।
পৃথক পৃথক বিবৃতিতে তারা মরহুমের রুহের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।
মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৪৯ বছর। ২০১৯ সালে সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবেও নির্বাচন করেছিলেন তিনি।

দুপুরের দিকে তার লাশবাহী এ্যাম্বুলেন্সটি তাঁর গ্রামের বাড়ি ফেনীর ধর্মপুরে এলে হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। পরিবার, স্বজন, রাজনৈতিক সহকর্মী, শুভাকাঙ্খীদের কান্নায় ভারী হয়ে উঠে ধর্মপুরের বাতাস। তাকে শেষবারের মত এক নজর দেখতে মানুষের ভিড় নামে ধর্মপুর ইউনিয়নের জোয়ার কাছাড় গ্রামে। বিশাল জনসভায় হিমশিম খেতে হয় উপস্থিত সকলকে। বোঝা যায় এই নেতার জনপ্রিয়তা।

শুক্রবার বিকাল ৫ টায় ধর্মপুর ইউনিয়নের আমতলী গ্রামের তার নিজ বাড়ির দরজায় নামাজের জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থান বটুয়া দিঘীরপাড়ে দাফন করা হয়।