মোহাম্মদপুরে সায়েম মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শীতবস্ত্র ‘কম্বল’ বিতরণ

প্রকাশিত: ৯:৪২ পূর্বাহ্ণ , জানুয়ারি ২৪, ২০২১

আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য এবং সাবেক এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী বীরমুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক এর একমাত্র প্রয়াত পুত্র সায়েম-উর-রহমানের স্মৃতি রক্ষার্থে গঠিত ‘সায়েম মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন’ এর উদ্যোগে অসহায় শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র ‘কম্বল’ বিতরণ করেছেন।

২৩ জানুয়ারি ২০২১ রোজ শনিবার ঢাকা মহানগর-উত্তর মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেব লীগের সংগ্রামী সভাপতি রাজপথের লড়াকু সৈনিক লায়ন এম এ লতিফ মোহাম্মদপুরে শীতার্ত মানুষের হাতে শীতবস্ত্র ‘কম্বল’ তুলে দেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ’সহ প্রমুখ।

লায়ন এম এ লতিফ বলেন, দরিদ্র ও ছিন্নমূল মানুষের জন্য শীতকাল বড় কষ্টের। শীতকালে দরিদ্র ও ছিন্নমূল মানুষের শীত নিবারণ অতীব প্রয়োজন। শৈত্যপ্রবাহ থেকে রক্ষা পাওয়ার ন্যূনতম ব্যবস্থাপনাও তাদের থাকে না। ফলে অসহায় ও হতদরিদ্রদের কষ্ট কেবল বেড়েই যায়। বৃদ্ধ, শিশু ও ফুটপাতের গরিব মানুষ গরম কাপড়ের অভাবে মারাও যায়। হাড় কাঁপানো শীতের কবল থেকে তাদের রক্ষা করা এবং সামর্থ্যের ভিত্তিতে সাহায্য-সহযোগিতার হাত প্রসারিত করা প্রত্যেক মানুষের দায়িত্ব।শীতবস্ত্র বিতরণে সমাজের বিত্তবানদের অসহায় মানুষের কল্যাণে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

লায়ন এম এ লতিফ আরো জানান প্রতি বছরের মতো এ বছরও ‘সায়েম মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন’ শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র ‘কম্বল’ বিতরণ করছে।

উল্লেখ্য ২০১১ সালের ৬ সেপ্টেম্বর রাতে কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলায় ডুলাহাজারা সাফারি পার্কের কাছে এক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন সায়েম। ওই সময় আওয়ামী লীগ নেতা নানকের ছেলের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সরকারের মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতারা শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাতে ছুটি গিয়েছিলেন মোহাম্মদপুরে নানকের বাসায়।