বছরের প্রথম দিনই বই পাবে শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত: ৫:৩৮ অপরাহ্ণ , ডিসেম্বর ২৩, ২০২০

গত ১০ বছর ধরে ১ জানুয়ারি উৎসবের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দিচ্ছে সরকার। এবার করোনা সংক্রমণ বদলে দিয়েছে পরিস্থিতি। লকডাউন, দেরিতে বই ছাপার দরপত্র, কাগজ পেতে সমস্যাসহ নানা কারণে বছরের প্রথমদিন বই বিতরণ নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছিল। 

তবে সব শঙ্কা কাটিয়ে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের হাতে বছরের প্রথম দিনই তুলে দেয়া হবে। এরই মধ্যে প্রথমিক ও মাধ্যমিকের বেশিরভাগ বই ছাপা হয়েছে। বাকিগুলোর জন্যে ব্যস্ত ছাপাখানার কর্মীরা।

ছাপাখানা সংশ্লিষ্টরা জানান, নির্ধারিত সময়ের আগেই এসনিটিবি’কে বই বুঝিয়ে দিতে পারবেন তারা। টইমস মিডিয়া লিমিটেডের ম্যনেজার এন্ড এইচ ও পি এম এ আলী খান সাব্বির জানান, ‘আশা করা যায় ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে আমাদের বাকি কাজ শেষ হবে। ফলে নতুন বছরের শুরুতে শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দিতে পারবে সরকার।’

জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের (এসনিটিবি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক নারায়ণ চন্দ্র সাহা বলছেন, করোনার কারণে এবার উৎসব না হলেও, বছরের প্রথম দিনই বই পাবে শিক্ষার্থীরা।

তিনি বলেন, ‘প্রাথমিক ও মাধ্যমিকের অধিকাংশ বইয়ের কাজ শেষ পর্যায়ে। যদিও ১ জানুয়ারি শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দেয়া হবে কিনা, এমন সিদ্ধান্ত সরকারের পক্ষ থেকে এখনও আসেনি। তবে কোয়ালিটি সম্পন্ন বই বছরের প্রথমেই শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেয়া সম্ভব।’

রাজধানীর স্কুলগুলো বলছে, সরকারি নির্দেশনা অনুয়ায়ী শির্ক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দেয়া হবে। ধানমন্ডি গভ: বয়েজ হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, ‘চলমান করোনা সংকটের কারণে সবকিছু একটু ব্যতিক্রমভাবে হচ্ছে। কিভাবে শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দেয়া হবে, আশা করা যায় সরকারের পক্ষ থেকে আমরা নির্দেশনা পাব।’

জানা গেছে, রাজধানীর মতো সারা দেশেও পৌঁছে যাচ্ছে পাঠ্য পুস্তক, তারাও প্রস্তুত বিতরণের জন্য। অপেক্ষা সরকারি নির্দেশনার।