ফের লকডাউনের কবলে লন্ডন

প্রকাশিত: ১০:২৬ পূর্বাহ্ণ , ডিসেম্বর ২০, ২০২০

বৈশ্বিক মহামারি করোনার দ্বিতীয় ধাপ পার করছে গোটা ইউরোপ। এর মধ্যে সবচেয়ে শোচনীয় অবস্থা ব্রিটেনে। যেখানে প্রথম ধাপের তুলনায় করোনা ভয়ানক রূপ নিয়েছে। এখনও প্রতিদিনই কয়েক হাজার মানুষ সংক্রিমত হওয়ার পাশাপাশি প্রাণ হারাচ্ছেন কয়েকশ ভুক্তভোগী। 

এমতাবস্থায় গত মাসেই চার সপ্তাহের জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছিলেন বরিস জনসনের সরকার। তারপরও রাজধানী লন্ডনসহ দেশটির দক্ষিণাংশের বড় একটা অংশজুড়ে ভয়াবহ রূপ নিয়েছে সংক্রমণ।

ফলে নতুন করে কঠোর পদক্ষেপ নিতে হলো ব্রিটেন সরকারকে। লন্ডনসহ এসব এলাকায় এবার স্বাস্থ্যবিধি মানাতে ‘টিয়ার ফোর’ নিরাপত্তা সতর্কতা বা সর্বোচ্চ পর্যায়ের লকডাউন জারি করা হয়েছে। যা আজ রোববার থেকে কার্যকর হচ্ছে।

বড়দিন উৎসবের মওসুমে সংক্রমণ যাতে আরও ব্যাপকভাবে না ছড়াতে পারে, সেজন্যই মূলত এমন পদক্ষেপ। দুই সপ্তাহ ধরে জারি করা এ লকডাউন আগামী ৩০ ডিসেম্বর নতুন করে পর্যালোচনা করা হবে।

এর আগে স্থানীয় সময় শনিবার (১৯ ডিসেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪টায় এক সংবাদ সম্মেলনে ব্রিটিশ সরকার প্রধান বরিস জনসন এই লকডাউন ঘোষণা করেন।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী- লন্ডন, সাউথ ইস্ট ও ইস্ট লব ইংল্যান্ডে এই লকডাউন কার্যকর থাকবে। এসব এলাকায় নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য বিক্রি ছাড়া সব ধরনের দোকানপাট ও হোটেল বন্ধ থাকবে। খুব জরুরি প্রয়োজন ছাড়া এসব এলাকার বাসিন্দাদের ঘরের বাইরে বের না হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

সংবাদ সম্মেলনে বরিস জনসন আরও বলেন, ‘আমরা যেভাবে পরিকল্পনা করেছিলাম, সেভাবে এবার বড়দিন উদযাপন করা হবে না।’

এদিকে, দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগের বরাত দিয়ে জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডমিটারের নিয়মিত পরিসংখ্যানে বলা হয়েছে- গত ২৪ ঘণ্টায় যুক্তরাজ্যে ২৭ হাজার ৫২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এতে করে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ২০ লাখ ৪ হাজার ২১৯ জনে দাঁড়িয়েছে। নতুন করে প্রাণহানি ঘটেছে ৫৩৪ জনের। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ৬৭ হাজার ৭৫ জনের মৃত্যু হয়েছে দেশটিতে। যদিও সুস্থতা লাভ করেছেন এক-তৃতীয়াংশের বেশি রোগী।