ভালোবাসার উপাখ্যান

প্রকাশিত: ৭:১৫ অপরাহ্ণ , নভেম্বর ২২, ২০২০
মনিরুজ্জামান মানিক :
কখনো বলিনি, বলতে চাইনি তোমাকে ভীষণ ভালোবাসি,বড্ড ভালোবাসি। এ শহরের কাকটাও যখন জেনে গেছে তখন আর কিভাবে মনকে বেঁধে রাখি। নিজকে ভালোবাসার বন্ধন থেকে আড়াল করি।
ভালোবাসা লুকানো যায় না,দাবিয়েও রাখা যায় না। ভালোবাসা জেগে উঠে,ভালোবাসা মনের গহীণ থেকে নীল গগণে মনের আনন্দে উড়ে উড়ে বেড়ায়।
জানো তো মানুষের ছায়াতেই ভালোবাসার রেখাপাত। যেন মুখ দেখলেই মন পড়া যায়। আর যে মন পড়তে জানে সে মন বুঝতে পারে,সে খুব ভালো বাসতেও পারে।
সত্যি বলছি,হলফ করে বলছি,যে ভালো বাসতে জানে,নিশ্চয়ই সে ভালো বাসতেও পারে।
আচ্ছা ছায়াতেই যে মানুষের জন্য মানুষের ভালোবাসা লুকিয়ে থাকে এমন ধারনা কিন্তু মোটেও ঠিক নয়।
ভালোবাসা মানে এক দৌড়ে কাছে আসাও নয়। এক ঝাপটায় ঠোঁটে ঠোঁট মিলেয়ে ঠেসে ঠেসে চুমু খাওয়াও নয় । ভালোবাসা মানে কাছে থাকলেও সই,আবার দূরে গেলেও সই। ভালোবাসা হলো সহজসরল সাবলীল।
ভালোবাসা মানে ঠুনকো ছুঁতোর অজুহাতে ইচ্ছে করে মনের আড়ালে লুকিয়ে থাকা নয়,কাউকে না বলে হঠাৎ করে দুরাকশে পালিয়ে যাওয়াও নয়,নিরুদ্দেশ হওয়াও নয়।
ভালোবাসা মানে প্রতিদিনই নতুন নতুন স্বপ্ন দেখা। তিলে তিলে গড়া স্বপ্নকে বাস্তবের রশি দিয়ে টেনে বেঁধে ফেলার অভিপ্রায়,মনে পুষে রাখা কামনা বাসনা চরিতার্থ করার স্বপ্নময় অভিলাষ।
ভালোবাসার কথা লোকে জেনে গেছে যাক না। ভালোবাসা রাষ্ট্র জেনে গেছে যাক না। ভালোবাসার কথা শহরের সব কাক জেনে গেছে যাক না। আমি পরাভূত ই,পরাজিত নই,
আমি লজ্জিত নই, কুন্ঠিতও নই।
যে যা বলে বলুক না,
যে যা পারে করুক না,
আমি তোমাকে ভালোবসি, ভীষণ ভালোবাসি, বড্ড ভালোবাসি।