ডিজে শাকিলের প্রতারণার ফাঁদ পাতা টাঙ্গাইলেও

প্রকাশিত: ২:১৭ অপরাহ্ণ , আগস্ট ১৫, ২০২০

মেহেদী হাসান চৌধুরী টাঙ্গাইল অফিস :
প্রতারণার মামলায় বগুড়ায় গ্রেপ্তার হওয়া বহিষ্কৃত যুবলীগ নেতা ডিজে শাকিলের প্রতারণার আরও খবর মিলছে এখন।

ডিজে শাকিলের প্রতারণার ফাঁদ পাতা ছিল টাঙ্গাইলেও। সেখানে তার প্রতারণার শিকার হয়ে নিঃস্ব হয়েছেন অনেকেই।

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে নিজ কার্যালয় থেকে ১২শ’ কোটি টাকার চেকসহ প্রতারক ডিজে শাকিলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তার প্রতারণার শিকার টাঙ্গাইলের কালিহাতীর মগড়া এলাকার তাপস কুমার পালও। শাকিলের কাছ থেকে জব্দ করা চেকগুলো মূলত রাজলক্ষ্মী ট্রেডিং কর্পোরেশনের মালিক তাপসের।

২০১৫ সালে শাকিলের সাথে পরিচয় হলে পাঁচ কোটি টাকা ঋণ পাইয়ে দেয়ার কথা বলে স্বাক্ষরসহ সব চেকের পাতা তাপসের কাছ থেকে হাতিয়ে নেন শাকিল। পরে সেখানে ইচ্ছেমত টাকার অংক বসিয়ে ব্যবহার করতেন প্রতারণার কাজে শাকিল।

কেবল চেক নয়। প্রভাবশালীদের সাথে সখ্য থাকার সুবাদে চাকরি দেয়ার কথা বলে তার কাছ থেকে শাকিল হাতিয়ে নিয়েছেন আরও ১৩ লাখ টাকা। আর চেক ও টাকা ফেরতের জন্য সালিশি বৈঠক হলেও মেলেনি কোনও প্রতিকার।

শুধু চেক বা চাকরির দেযার নামে টাকা হাতিয়ে থেমে থাকেননি শাকিল। অনুদান দেয়ার কথা বলে প্রায় ২ হাজার মানুষের কাছ থেকে নিয়েছেন ন্যাশনাল আইডি কার্ড।

এদিকে, চেকের ব্যাপারে পূবালী ব্যাংকের টাঙ্গাইল শাখা আনুষ্ঠানিকভাবে কোনও বক্তব্য না দিলেও তাদের পক্ষ থেকে জানানো হয় ২০১৫ সালে হিসাব খোলা হলেও ওই অ্যাকাউন্টে কোনো লেনদেন না করায় তা বন্ধ রয়েছে।