অবস্থা আশঙ্কাজনক

ছুরিকাঘাতে আহত সালমান রুশদি

প্রকাশিত: ১১:৪৭ পূর্বাহ্ণ , আগস্ট ১৩, ২০২২

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে একটি বই নিয়ে মঞ্চে বক্তব্য দেওয়ার সময় এক দুষ্কৃতকারীর ছুরিকাঘাতের শিকার হয়েছেন বুকারজয়ী লেখক সালমান রুশদি। ঘটনার পরই তাকে হাসপাতাল নিয়ে যাওয়া হয়েছে। জানা গেছে, রুশদিকে ভেন্টিলেটরে নেওয়া হয়েছে, তিনি কথা বলতে পারছেন না।

শুক্রবার (১২ আগস্ট) যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে একটি মঞ্চে বক্তব্য দেওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে। হামলার পর তাকে হেলিকপ্টারে পেনসিলভানিয়ার একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, পরিচয় হওয়ার ছদ্মবেশে একজন ব্যক্তি চৌতাকুয়া ইনস্টিটিউশনের মঞ্চে ওঠে সালমান রুশদির ঘাড়ে একাধিকবার ছুরিকাঘাত করেন। এসময় ৭৫ বছর বয়সী রুশদিকে ধাক্কা দিয়ে মেঝেতে ফেলে দেন তিনি।

নিউইয়র্ক পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গ্রেপ্তার করা হয়েছে হামলাকারীকে। পুলিশ হেফাজতে রয়েছেন হামলাকারী।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাতে গণমাধ্যম জানিয়েছে, চৌতাকুয়া ইনস্টিটিউশনের এক অনুষ্ঠানে মঞ্চে দাঁড়িয়ে ভাষণ দিচ্ছিলেন রুশদি। হঠাৎ এক ব্যক্তিকে মঞ্চে দৌঁড়াতে দেখা যায়। সেই ব্যক্তির মুখে কালো মাস্ক ছিল। তিনি রুশদিকে ছুরিকাঘাত করেছিলেন।

গণমাধ্যম সূত্রে আরও জানা যায়, এই আঘাতের পরে সালমান সম্ভবত একটি চোখ হারাতে পারেন। তার হাতের স্নায়ুগুলো বিচ্ছিন্ন হয়েছে এবং লিভারও ক্ষত হয়েছে।

তবে এখনও কেন বা কী উদ্দেশ্য নিয়ে এ হামলা চালানো হয়েছে সে বিষয়ে কিছু জানায়নি পুলিশ। অনুষ্ঠানস্থলে পাওয়া একটি ব্যাকপ্যাক ও ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস পরীক্ষা করছে পুলিশ।

ভারতীয় বংশোদ্ভূত বুকার পুরস্কারজয়ী ৭৫ বছর বয়সী লেখক রুশদি ১৯৮১ সালে তাঁর লেখা বই ‘মিডনাইটস চিলড্রেন’ দিয়ে খ্যাতি অর্জন করেন। কিন্তু ১৯৮৮ সালে তাঁর চতুর্থ বই ‘দ্য স্যাটানিক ভার্সেস’-এর জন্য তাঁকে ৯ বছর লুকিয়ে থাকতে হয়েছিল।

রুশদির ওপর হামলার ঘটনায় যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনসহ দেশটির রাজনীতিবিদেরা নিন্দা জানিয়েছেন।
সূত্র: বিবিসি, রয়টার্স