হত্যাকারীরা গ্রেপ্তার

পরকীয়ার জেরে ফেনীতে রাখাল খুন

প্রকাশিত: ২:১১ অপরাহ্ণ , জুলাই ১৯, ২০২০

ফেনীতে পরকীয়ার জেরে রামপুরের সেই রাখাল মোজাম্মেল হক সাগরকে (২৪) হত্যা করা হয়েছে। হত্যার জড়িত থাকার অভিযোগে স্বামী-স্ত্রী-ভাসুরকে ফেনী ও চাঁদপুর থেকে গ্রেপ্তার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। ঘটনার দেড় মাস পর রহস্য উদঘাটন করে রোববার সকালে পুলিশ সুপার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন পুলিশ সুপার।
পুলিশ সুপার খোন্দকার নূরনবী জানান, গত ৩০ মে সকালে ফেনী শহরের রামপুর পাটোয়ারী বাড়ির সাদেক হোসেন পাটোয়ারীর মালিকীয় শাহনাজ ডেইরি ফার্মে দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে খুন হয় খামার কর্মচারী মোজাম্মেল হক সাগর।
ওই দিন ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তবে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের ব্যবহৃত মুঠোফোনটি উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। খোয়া যাওয়া সেই মুঠোফোনের সূত্র ধরে অভিযান চালায় জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।

পুলিশ জানায়, পরকীয়ার জেরে হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। নয়নের স্ত্রী বৃষ্টির সাথে সাগরের সম্পর্ক ছিলো। সেই সম্পর্কের কিছু ছবি ও ভিডিও ছিলো সাগরের মুঠোফোনে। বিষয়টি জানতে পেরে সাগর থেকে মুঠোফোনটি উদ্ধার করতে বৃষ্টির স্বামী নয়ন হত্যার পরিকল্পনা করে। এতে যুক্ত করা হয় নয়নের বড় ভাই রাজনকে।
ঘটনার দিন সকালে সাগরকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে খুন করে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি নিয়ে যায় হত্যাকারীরা। পুলিশ দীর্ঘ দেড় মাস ফেনী, নোয়াখালী, কুমিল্লা ও চাঁদপুরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালায়। এসময় হত্যায় জড়িত তিন জনকে গ্রেপ্তার করে জিঙ্গাসাবাদ করলে তারা হত্যায় জড়িত থাকার কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করে।
এদের মধ্যে মামলার দুই নম্বর আসামি চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ থানার অষ্ট গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে রাজনকে (৩৫) চাঁদপুর ফরিদগঞ্জ থেকে, তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী তার ছোট ভাই মামলার ২নং আসামী মোহন ওরফে নয়ন (৩০) ও মামলার ৩নং আসামী নয়নের স্ত্রী খালেদা আক্তার বৃষ্টিকে (২৪) ফেনী সদর উপজেলার রানীর হাট এলাকার মামুন ডেকোরেটরের বাড়ি হতে গ্রেপ্তার করে।