বাংলাদেশী গেমারদের প্রত্যাশা পূরণে ইনফিনিক্স ‘হট ইলেভেন এস’ ( Infinix Hot11S)

প্রকাশিত: ৪:১৭ অপরাহ্ণ , মার্চ ২৯, ২০২২

ইনফিনিক্সের ‘হট ইলেভেনএস’ বাংলাদেশের গেমারদের কাছে ‘হটকেক’-এর মতো সমাদৃত অ্যারেনা অব ভ্যালোর ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়নশিপের কো-স্পন্সর বা সহপৃষ্ঠপোষক হল ইনফিনিক্স

সাম্প্রতিক সময়ে উন্নত মানের ভিডিও গেম খেলা একটি জনপ্রিয় বৈশ্বিক প্রবণতা হয়ে উঠেছে। এই প্রবণতার সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশি গেমাররাও এখন নিজেদের মোবাইল ফোনে উন্নত মানের ভিডিও গেম খেলছেন। কিন্তু কখনও কখনও স্বাচ্ছন্দ্যে গেম খেলার মতো ডিভাইস, অর্থাৎ মোবাইল ফোনের দাম তাঁদের সামর্থ্যের তুলনায় অনেক বেশি ব্যয়বহুল হয়ে পড়ে। তাই বাংলাদেশী গেমারদের প্রত্যাশা পূরণে ইনফিনিক্স ‘হট ইলেভেনএস’ (Hot 11S) ডিভাইসে উন্নত মানের গেম খেলার সুযোগ নিয়ে এসেছে। এখন তাঁরা নিজেদের ফোনে ডার-লিঙ্ক আলটিমেট গেম বুস্টার (Dar-Link Ultimate Game Booster) ব্যবহার করে গেম খেলতে পারবেন। শুধু তাই নয়, একজন গেমার সেই সেটিংস ও গেমগুলো গেম জোনে সেভ করেও রাখতে পারবেন।
যাঁরা গেম খেলতে পছন্দ করেন তাঁদের কাছ থেকে নতুন এই ডিভাইসটি ব্যাপকভাবে ইতিবাচক সাড়া পেয়েছে এবং এটি এখন বাজারে এ ধরনের পণ্যের মধ্যে হটকেকের মতো সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে। উপরন্তু বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি পর্যালোচনাকারী ও ইউটিউবাররা এই ফোনের চমৎকার গেমিং বৈশিষ্ট্যগুলো নিয়ে ভীষণ সন্তুষ্ট। মজার বিষয় হল, বাংলাদেশের প্রযুক্তি এই খাতের তরুণ নেতৃত্বও ‘ইনফিনিক্স হট ইলেভেন এস’কে বাজেট গেমিং স্মার্টফোন বা সাশ্রয়ী দামে গেম খেলার সেরা মোবাইল ফোন বলে মতামত দিয়েছেন এবং এটির পক্ষে সুপারিশ করেছেন।
সৌন্দর্য, শক্তি ও উদ্ভাবন মিলিয়ে ইনফিনিক্স মোবাইলের হট ইলেভেন এস (Infinix Hot11S) এখন বাংলাদেশী গেমারদের কাছে একটি অত্যন্ত চাহিদাসম্পন্ন ও আকর্ষণীয় স্মার্টফোন হিসেবে ভীষণ সমাদৃত হয়ে উঠেছে। কারণ এটি গেমারদের জীবনে কল্পনাশক্তিকে জাগিয়ে তোলে। সম্প্রতি ইনফিনিক্স হট ইলেভেন এস (Infinix Hot11S) বাংলাদেশের বাজেট-গেমিং কমিউনিটি বা সাশ্রয়ী খরচে গেম খেলায় প্রত্যাশী গেমার সম্প্রদায়ের মধ্যে জাগরণের সৃষ্টি করেছে। ইনফিনিক্স হট সিরিজের “গেম অন” স্লোগানটি স্ফুলিঙ্গের মতো জ্বলে উঠেছে। বিশেষ করে হাই-এন্ড কনফিগারেশন বা উচ্চ প্রযুক্তি মানসম্পন্ন কনফিগারেশন সমৃদ্ধ এই ফোন তরুন গেমারদের হাতছানি দিয়ে ডাকছে। এই পাওয়ার-প্যাকড ডিভাইসটিতে গেমিং প্রসেসর হেলিও জি৮৮ (Helio G88), নাইনটি হার্টজ এফএইচডি+ (90Hz FHD+) ডিসপ্লে এবং বিশাল স্টোরেজ সুবিধা, ছয় জিবি র্যাম (6GB RAM) এবং আরো পাঁচ জিবি বর্ধিত র্যামের (5GB extended RAM) সুবিধা রয়েছে। সব মিলিয়ে একটি সাশ্রয়ী বাজেট সীমার মধ্যেই রয়েছে উচ্চ প্রযুক্তিসম্পন্ন এই মোবাইল ফোনের দাম।
আগে বাংলাদেশের বাজারে ইনফিনিক্স হট ইলেভেন এস (Infinix Hot11S) মোবাইল ফোনসেটের দাম ছিল ১৫,৯৯০ টাকা। মূল্যছাড়ে এখন তা সারা দেশে ১৫,১৯০ টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে।