নিউ ইয়র্কে রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে গোলটেবিল আলোচনা

প্রকাশিত: ৫:৫৯ অপরাহ্ণ , অক্টোবর ১৭, ২০২১

রোহিঙ্গাদের সমস্যা সমাধানে বিশ্ব সম্প্রদায়কে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানানো হয়। শনিবার (১৬ অক্টোবর) নিউ ইয়র্কে ‘রোহিঙ্গা ইস্যু এবং বাংলাদেশে এর সামাজিক ও অর্থনৈতিক প্রভাব’শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনায় এ আহ্বান জানায় সেন্টার ফর এনআরবি।

সেন্টার ফর এনআরবির উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তারা বিশ্বসম্প্রদায়কে বাংলাদেশে আশ্রয় গ্রহণকারী মিয়ানমারের নাগরিক রোহিঙ্গা গোষ্ঠীর সমস্যার স্থায়ী সমাধানে উদ্যোগ গ্রহণ করার আহ্বান জানান।

বক্তারা বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যা বাংলাদেশের সমস্যা নয়। এটি একটি মানবিক বিপর্যয়। মিয়ানমার কর্তৃক সৃষ্ট এই সমস্যা সমাধানের জন্য জাতিসংঘসহ বিশ্ব সম্প্রদায়ের সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে। যাতে করে বাংলাদেশ প্রায় ১১ লাখ আশ্রয় গ্রহণকারী রোহিঙ্গার ভারবহনের দায় থেকে মুক্তি পেতে পারে।

অনুষ্ঠানে রোহিঙ্গা বিষয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাতিসংঘ অধিবেশনে প্রদত্ত লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন আমেরিকা প্রবাসী সারওয়ার চৌধুরী। অনুষ্ঠানে এনআরবির চেয়ারপারসন সেকিল চৌধুরী মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নিউ ইয়র্ক প্রবাসী বাংলাদেশি বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও পেশাজীবী সংগঠনের প্রধান ব্যক্তিবর্গ। অনুষ্ঠানে রোহিঙ্গা নিয়ে কাজ করা নিউইয়র্ক প্রবাসী বাংলাদেশি সাংবাদিক ও লেখকরা তাদের অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেন।

বক্তারা এসময় বলেন, বাংলাদেশ এক কঠিন সমস্যার মুখোমুখি। প্রায় ১১ লাখ রোহিঙ্গা নাগরিক বাংলাদেশের ৩৫টি ক্যাম্পে আশ্রয় গ্রহণ করেছে এবং এদের কারণে স্থানীয় পরিবেশ, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি, খাদ্য সংকট, কর্মসংস্থান, প্রশাসনিক ব্যয় বৃদ্ধিসহ নানামুখী সমস্যা তৈরি হয়েছে।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চিকিৎসক মাসুদুল হাসান, সাংবাদিক ফজলুর রহমান, আব্দুল কাদের মিয়া ফাউন্ডেশনের সভাপতি আব্দুল কাদের মিয়া, রিমন ইসলাম, সমাজসেবী জুলকার হায়দার, ইউএস বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি লিটন আহমেদ, কাতার প্রবাসী নজরুল ইসলাম, প্রবাসী শিল্পী ইকবাল হামিদ, অধ্যাপক হোসনে আরা, শেখ আতিকুল ইসলাম, মামুনুর রশিদ খান শিপু, আমেরিকা ইসলামিক সেন্টারের সভাপতি অ্যাডভোকেট নাসিরুদ্দিন আহমেদ, ব্যবসায়ী সানওয়ার চৌধুরী, বাংলাদেশি ফ্যাশন ডিজাইনার তহুরা চৌধুরী, বাংলাদেশ আমেরিকান পুলিশ এসোসিয়েশনের সভাপতি ক্যাপ্টেন কারাম চৌধুরী, ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংকের কর্মকর্তা ইমতিয়াজ চৌধুরী প্রমুখ।