সিএমপিতে সংযোজিত হলো ‘বডি ওর্ন ক্যামেরা’

প্রকাশিত: ৯:০৩ অপরাহ্ণ , জুলাই ২৫, ২০২১
রাজধানী ঢাকা ও সিলেটের পর আজ থেকে চট্টগ্রাম মহানগরীর ৪ থানা ও ট্রাফিক বিভাগে প্রথমবারের মতো চালু করা হলো ‘বডি ওর্ন ক্যামেরা’। পাইলট প্রকল্পের আওতায় আপাতত সিএমপি’র ৪ থানা যথাক্রমে কোতোয়ালী, ডবলমুরিং, পাঁচলাইশ ও পতেঙ্গা এবং ট্রাফিক বিভাগে এ কার্যক্রম চালু করা হয়েছে। বিশ্বের অনেক উন্নত দেশে ‘বডি ওর্ন ক্যামেরা’ কার্যক্রম চালু আছে। পুলিশের কাজে স্বচ্ছতা, দক্ষতা ও জবাবদিহিতা আনয়নের লক্ষ্যে সিএমপির এ উদ্যোগ। সিএমপিতে ট্রাফিকের পাশাপাশি অপরাধ দমন ও আইন-শৃংখলা রক্ষায় দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদেরকে এ ক্যামেরা দেয়া হয়েছে। সফলতা পেলে পর্যায়ক্রমে প্রত্যেক থানায় এ ক্যামেরা দেয়া হবে।
সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীরের নির্দেশে আজ দুপুরে নগরীর টাইগার পাস মোড়ে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ট্রাফিক সার্জেন্ট মো. ওয়াসিম আরাফাত ও ট্রাফিক সার্জেন্ট নাজমুল আলম ছিদ্দিকীর শরীরে ক্যামেরা সংযুক্ত করে এ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) শ্যামল কুমার নাথ।
এ ক্যামেরা দ্বারা অডিও, ভিডিও এবং ছবি ওঠানো যাবে। মাঠ পর্যায়ে পুলিশ সদস্যদের কার্যক্রম সুচারুরূপে তদারকি করতে ‘বডি ওর্ন ক্যামেরা’ সহযোগিতা করবে। অনেক কিছু তাদের চোখ এড়িয়ে গেলেও ক্যামেরায় রেকর্ড হবে। পরে যা দেখে তদন্ত কাজ সম্পন্ন করা যাবে। প্রথম দফায় সিএমপির ৪ থানায় ৭টি করে ২৮টি ও ট্রাফিক বিভাগে ২২টিসহ মোট ৫০টি ‘বডি ওর্ন ক্যামেরা’ দেয়া হয়েছে।
জিপিআরএস প্রযুক্তির মাধ্যমে যে কোন স্থান থেকে এ ক্যামেরা দেখে পুলিশের কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণ ও নজরদারি করা যাবে। সিসি ক্যামেরার মত কাজ করবে এটি। ‘বডি ওর্ন ক্যামেরা’ চালু হওয়ার পর দায়িত্ব পালনের সময় পুলিশ সদস্যদের অগোচরে অনেক কিছু বাদ পড়লেও ক্যামেরায় রেকর্ড হওয়া তথ্য ও ছবি কাজ দেবে। এ ক্যামেরা চালুর মাধ্যমে সিএমপি’র প্রযুক্তিগত কার্যক্রম আরও এক ধাপ এগিয়ে গেল।
এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিএমপির উপপুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক-দক্ষিণ) এন.এম নাসিরুদ্দিন, অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক-দক্ষিণ) মোঃ রইছ উদ্দিন, সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক-দক্ষিণ) মোঃ মাহামুদুল হাসান ও ট্রাফিক কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তাগণ।