আশুলিয়ার কুটুরিয়ায় ফাঁসিতে ঝুলানো লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত: ১২:৩৫ অপরাহ্ণ , এপ্রিল ২১, ২০২১
Exif_JPEG_420

আশুলিয়ার কটুরিয়া থেকে রিপন মিয়া (৩২) নামে এক পা ও মানুষিক প্রতিবন্ধীর লাশ উদ্ধার করেছে আশুলিয়া থানা পুলিশ ।

আজ বুধবার ২১ এপ্রিল সকালে নিজ ঘর থেকে গলায় ফাঁসি লাগানো অবস্থায় প্রতিবন্ধী রিপনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

রিপন ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা মনোহরপুর উত্তর পাড়ার মৃত আদিল উদ্দিন মিয়ার ছেলে। সে এক ছেলে ও স্ত্রীকে নিয়ে আশুলিয়া ইউনিয়নের কুটুরিয়া এলাকায় মেজর ইকবালের ভাড়া বাড়ির একটি রুম বাড়া নিয়ে থাকতো। তার স্ত্রী ডেকো গার্মেন্টস এ চাকুরী করে। পা প্রতিবন্ধী থাকায় বেকার ছিল রিপন । দু’মাস যাবৎ তার মানুষিক আচরন অস্বাভাবিক ছিলো বলে জানায় তার আত্মীয় স্বজন ও প্রতিবেশীরা। মঙ্গলবার সন্ধ্যা রাতে রিপন অন্যান্য সময়ের চেয়ে বেশি মানুষিক ভারসাম্যহীনের আচরণ করা শুরু দেয়। এক সময় তার স্ত্রী সন্তানকে হত্যা করার হুমকি দিতে থাকে। পরে রিপনের আত্মীয়রা এমতাবস্থায় হতাহতের আশঙ্কায় রিপনের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ও সন্তানকে অন্য ঘরে নিয়ে রাখে।
সকালে রিপনের ঘরে রিপনকে ডাকতে এসে রিপনকে ফাঁসিতে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায় তারা।

আশুলিয়া থানার উপ পরিদর্শক (এস আই) আল আমিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আজ সকালে রিপনের নিজ ঘরে রিপনকে ফাঁসিতে ঝুলন্ত দেখতে পেয়ে স্থানীরা আশুলিয়া থানায় জানালে রিপনের ঘর থেকে রিপনের মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপনের মানুষিক আচরণ অস্বাভাবিক ছিলো তা প্রাথমিক ভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে। পোস্টমর্টেম রিপোর্ট আসার পর আত্মহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।