গৌরীপুরের সিধলায় ভাইকে বাঁচাতে গিয়ে প্রতিপক্ষের আঘাতে বোন নিহত

প্রকাশিত: ১০:২৮ অপরাহ্ণ , ডিসেম্বর ৫, ২০২০

ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার সিধলা ইউনিয়নের মানিয়ারকান্দা গ্রামে জমিসংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে শনিবার ৬ জন গুরুতর আহত হন। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার সন্ধ্যায় আহত পারুল বেগম ওরফে সেলিনা বেগম (৫৭) মারা যান। তিনি সিধলা ইউনিয়নের সিধলা মানিয়ারকান্দা গ্রামের মো. আব্দুল আজিজ খানের স্ত্রী।

মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. বোরহান উদ্দিন। তিনি জানান, জমিসংক্রান্ত বিরোধের ঘটনায় গৌরীপুর থানায় মামলা হয়েছে। এ মামলায় হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি আদালতের অনুমতিসাপেক্ষে সংযোজন করা হবে। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সংঘর্ষের ঘটনায় সিধলা মানিয়ারকান্দা গ্রামের মৃত আব্দুল হাসিম মাস্টারের পুত্র মো. সাখাওয়াত হোসেন (৫৬) বাদী হয়ে গৌরীপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। তিনি জানান, বাবার ক্রয়সূত্রে জমিজমা ও সিধলা বাজারের জমি নিয়ে কথা আছে বলে তার চাচাতো ভাই আব্দুর রশিদ তাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে আসে। এরপরই তাকে ঘেরাও করে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। তার চিৎকারে ভাইবোন ও পরিবারের লোকজন ছুটে আসেন। ভাইকে বাঁচাতে এসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন তার বোন।

গৌরীপুর থানার ওসি মো. বোরহান উদ্দিন ও সাব-ইন্সপেক্টর নজরুল ইসলাম অভিযান চালিয়ে ৫ জনকে গ্রেফতার করেন। তারা হলেন- মৃত সাহার উদ্দিনের পুত্র মোসলেম উদ্দিন (৬৫), আবু হাম্মাদের পুত্র উজ্জল মিয়া (২৮), তাহের উদ্দিন ফকিরের পুত্র আবু হাম্মাদ (৫৬), আব্দুল গফুরের পুত্র আব্দুল রাশিদ (৪৬) ও আব্দুর রউফ (৬৫)। এ রিপোর্ট পাঠানো পর্যন্ত রাত সাড়ে ৭টায় লাশ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রয়েছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।