রামগড়ে বিপন্ন প্রজাতির লজ্জাবতী বানর উদ্ধার।

বাহার উদ্দিন বাহার উদ্দিন

রামগড় প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১০:০৭ অপরাহ্ণ , ডিসেম্বর ১, ২০২০

খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলায় বিপন্ন প্রজাতির দুইটি লজ্জাবতী বানর উদ্ধার করেছেন স্হানীয়রা।
উপজেলার রামগড় পৌর সভার ১নং পৌর ওয়াডের বল্টুরাম টিলা বৈষ্ণবপাড়া গ্রামের সাংবাদিক রতন বৈষ্ণব ত্রিপুরার বাড়ী সংলগ্ন মিশ্র ফল বাগান থেকে লজ্জাবতী বানর দুইটি মঙ্গলবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে উদ্ধার করা হয়।

রামগড় উপজেলা কারবারী এসোসিয়েশন এর সভাপতি আনন্দ মোহন ত্রিপুরা জানান, তার বাড়ির পাশের নিকট আত্নীয়ের মিশ্র ফল বাগানের গাছের ঢালে অদ্ভুদ আকৃতির বন্যপ্রাণী দেখতে পেলে স্হানীয়দের সহযোগীতায় বানর দুটিকে গাছ থেকে নামিয়ে খাচায় রেখে দেওয়া হয়। উদ্ধার হওয়া বিরল প্রজাতির বিলুপ্তপ্রায় প্রাণী দুইটি লজ্জাবতী বানর বলে নিশ্চিত করেন স্হানীয়রা। তিনি জানান বিলুপ্ত প্রজাতির বানর দুইটি কক্সবাজারের চকরিয়ার ডুলাহাজরা বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে হস্তান্তর করতে চান।

আগামীকাল রামগড় উপজেলা রেন্জ কর্মকত্তার নিকট বানর দুইটি হস্তান্তর করা হবে বলে তিনি জানান।
লজ্জাবতী বানর গুলো গাছের উঁচু শাখায় থাকতে পছন্দ করে। বাংলাদেশে সিলেট ও পার্বত্য চট্টগ্রামের বনাঞ্চলে এ প্রজাতির বানর দেখা যেতো। এরা সাধারণত একা বা জোড়ায় ঘুরে বড়ায়। ইংরেজিতে Bengal slow loris বলে এবং এটি বাংলা ভাষায় লজ্জাবতী বানর বা লাজুক বানর নামে পরিচিত।