মায়ের শূন্যতা আমাকে তছনছ করে দিচ্ছে- ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনাম

প্রকাশিত: ১১:৫৪ অপরাহ্ণ , সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় মাননীয় প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান এমপির মায়ের দাফন সম্পন্ন হয়েছে ‌। সন্ধ্যায় সাভারের তালবাগ কবরস্থান মাঠে মরহুমার জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয় ।

একমাত্র মমতাময়ী মাকে হারিয়ে মাননীয় প্রতিমন্ত্রী তার ফেসবুকে শোকাবহ একটি পোস্ট দিয়েছেন । তিনি লিখেছেন, মায়ের শুন্যতা আমা‌কে তছনছ করে দি‌চ্ছে। মা হারানোর শোকে হৃদয় থেকে টপটপ করে রক্ত ঝরছে। অদ্ভুত এক আঁধার গ্রাস করে নিচ্ছে আমার বেঁচে থাকার সাহস,উৎসাহ, শক্তি, সামর্থ্য,উৎস,প্রেরনা। সবকিছু।

সকল ব্যস্ততা শেষে আমার একখণ্ড অবসর আর পার্থিব প্রশান্তির আশ্রয় ছিল আমার মা। সুযোগ পেলেই ছুটে যেতাম মায়ের কাছে। মায়ের দোয়া,আদর আর ভালোবাসা ছিলো আমার সকল সাহস আর সামর্থের উৎস।

পরিবারের জ্যেষ্ঠ সন্তান হিসেবে মায়ের কাছে আমি ছিলাম অন্যরকম। ছোটবেলায় বাবাকে হারিয়েছিলাম। চরম প্রতিকূলতার সঙ্গে লড়াই সংগ্রাম করে আমাদের ভাই-বোনদের প্রত্যেককে মানুষের মত মানুষ করেছিলেন আমার মা।

মা সব সময় ভালোবাসার আঁচলে বেঁধে রাখতেন আমাকে। মায়ের সঙ্গে আমার সম্পর্ক,বোঝাপড়া,আবেগ আর অনুভূতির মাত্রাগুলো ছিল অন্যরকম। আমার যা কিছু অর্জন তার সবকিছুই এই মায়ের জন্য।

মায়ের অন্তিম যাত্রার ঠিক পূর্ব মুহূর্তে আমিসহ অনন্য চিকিৎসকরা যখন প্রাণপণ লড়াই করছি তখনই স্পষ্টভাবেই মা বলছিলেন, আমাকে তোমরা ধরে রাখতে পারবে না। তারপর “লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ” উচ্চারণ করেই মা চলে গেলেন না ফেরার দেশে। (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)

অথচ তার কিছুক্ষণ আগে মা আমার হাতে ভাত খেলেন। পানিও পান করলেন। এখন সবকিছুই ধূসর স্মৃতি।

পবিত্র কোরআনে আল্লাহ বলেছেন,

‘নিশ্চয়ই মৃত্যুর সময় নির্ধারিত। আল্লাহর অনুমতি ছাড়া কারো মৃত্যু হতে পারে না। কেউ পার্থিব পুরস্কারের জন্যে কাজ করলে তাকে তার পুরস্কার ইহকালে দান করবো। আর যদি কেউ পরকালের জন্যে কাজ করে তবে তার পুরস্কার সে পরকালে পাবে। শোকরগোজার বান্দাদের কাজের ফল আমি নিশ্চয়ই দেবো।’ (সূরা আলে ইমরান, আয়াত ১৪৫)

খুব কাছ থেকে আমার মায়ের মৃত্যু দেখে আমার মনে হয়েছে, আমার মা আল্লাহ ডাকে সাড়া দিয়েছেন ঈমানের সঙ্গে। গৌরবময় এমন মৃত্যু আমি খুব কমই দেখেছি।

আমার গর্ভধারিনী মা জননীর মৃত্যুতে যারা ছুটে এসেছেন, মায়ের শেষ যাত্রায় সামিল হয়েছেন, দূরদূরান্তে থেকেও অসংখ্য মানুষ আমার মায়ের জন্য দোয়া করেছেন। শোক জানিয়েছেন। তাদের প্রত্যেকে প্রতি আমার অশেষ কৃতজ্ঞতা। আপনারা সবাই আমার মায়ের জন্য দোয়া করবেন। আল্লাহ যেন তাকে বেহেশত নসিব করেন।

পরম শ্রদ্ধা জানাই মানবতার জননী, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, জননেত্রী শেখ হাসিনাকে। মায়ের মৃত্যুর খবর শোনার সাথে সাথেই তিনি আমাকে সান্ত্বনা দিয়েছেন। সাহস যুগিয়েছেন। আমার পরিবারকে সমবেদনা জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সম্মানিত সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ভাইসহ মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, রাজনৈতিক নেতাকর্মী, প্রশাসন, সাংবাদিক, বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনসহ নানা শ্রেণী-পেশার মানুষের পক্ষ থেকে আমার মায়ের মৃত্যুতে যারা শোক প্রকাশ করেছেন, ব্যথিত ও মর্মাহত হয়েছেন, তাদের সকলের প্রতি আমার পরিবারের বিনম্র শ্রদ্ধা।

মাগো মা। তোমার শূন্যতায় যে আমার হৃদয় টা ভেঙে চুরমার হয়ে যাচ্ছে মা। দিনশেষে কার টানে ছুটে আসবো সাভারে। কে আমার চোখ দেখে বুঝবে, আমার দুঃখ, বেদনা আর হাহাকার? তোমার মত আমাকে অমন ভালোবাসা মানুষ আর তো কেউ এই পৃথিবীতে রইল না মা! মাথায় হাত রেখে আমাকে কে যোগাবে সাহস,সামর্থ আর আত্মবিশ্বাস?

তুমি হীন এই পৃথিবীতে আমার বেঁচে থাকার আশাটাই যে ঝাপসা হয়ে আসছে মা।

যেখানেই আছো,ভালো থে‌কো মা।