‘আল্লাহর সাহায্যেই মিলবে করোনা থেকে পরিত্রাণ’

প্রকাশিত: ৩:৩৩ অপরাহ্ণ , মে ২৯, ২০২০

বিশ্বব্যাপী মহামারি আকার ধারণ করা করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের তালিকায় এখন বাংলাদেশও। এ পরিস্থিতিতে সর্বাত্মক সচেতনতা ও সতর্কতা অবলম্বনের কথাই উচ্চারিত হচ্ছে সর্ব মহলে। একই কথা বললেন জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের সিনিয়র পেশ ইমাম হাফেজ মুফতি মাওলানা মিজানুর রহমান। সেইসঙ্গে এক আল্লাহর সাহায্যেই করোনা থেকে পরিত্রাণ মিলবে মনে করেন তিনি।

এক আলাপচারিতায় তিনি বলেন, ‘করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আমাদের দরকার সর্বাত্মক সতর্কতা ও সচেতনতা। সকলের জন্যই জরুরি সতর্ক হওয়া। আমরা যারা ধর্মীয় অঙ্গনে কাজ করছি, তারা গত কয়েক সপ্তাহ ধরে মুসল্লিদের সতর্ক করার কাজ করে যাচ্ছি। আমরা মানুষকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকতে এবং সতর্কতার সঙ্গে চলাফেরা করতে বলছি। যাদের এ ভাইরাসের লক্ষণ রয়েছে তাদের বাড়িতে থেকে নামাজ আদায়ের জন্যও বলা হচ্ছে।’

অসুস্থতার ব্যাপারে ইসলামের নির্দেশনা প্রসঙ্গে মুফতি মিজানুর রহমান বলেন, ‘এ ধরনের রোগ-বালাই এক রকমের বিপদ-মুসীবত। এসব থেকে মুক্তির জন্য এক আল্লাহর সাহায্য চাইতে হবে। একমাত্র আল্লাহই পারেন এই মহাবিপদের হাত থেকে সকলকে রক্ষা করতে। আল্লাহর কাছে রোগ থেকে পানাহ চাইতে হবে, দোয়া করতে হবে। সকলের উচিত আল্লাহর কাছে সম্পূর্ণভাবে আত্মসমর্পণ করা। তবেই আল্লাহ পাক সকলকে এ মারাত্মক রোগ থেকে রক্ষা করবেন।’

একইসঙ্গে সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে নিজের, পরিবারের, সমাজের ও রাষ্ট্রের প্রতি দায়িত্ব পালন করতে হবে। নিজেকে সাহায্যের পাশাপাশি দেশ ও দশের প্রতি যার যার অবস্থান থেকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে হবে বলে আহ্বান জানান তিনি।

এ ক্ষেত্রে একটি হাদিস উল্লেখ করে সিনিয়র এই পেশ ইমাম বলেন, রাসূল (স.) বলেন, গোটা দুনিয়ার মানুষ এক আল্লাহর পরিবারতুল্য। তাঁর কাছে স্থান, কাল, পাত্র কোনও মুখ্য বিষয় নয়। তাই যারা দুনিয়ার মানুষের প্রতি সদয় হয়ে তাদের কল্যাণে কাজ করে, মহান আল্লাহ তাদের প্রতি সদয় হন ও রহম করেন।

তিনি বলেন, কাজেই সর্বাবস্তায় সকর্ত থেকে একে অপরকে সাহায্য করতে হবে এবং একইসাথে জমায়েত হওয়া পরিহার করতে হবে। আর আমরা বিশ্বাস করি যে, মহান আল্লাহ সর্বময় ক্ষমতার অধিকারী। তিনিই পারেন যে কোনও মহামারি বা বিপদ-আপদ থেকে রক্ষা করতে।

এক্ষেত্রে তিনি আগুনের উদাহরণ টেনে বলেন, আগুন দহন করে বলেই কিন্তু মানুষ আগুন থেকে দূরে থাকে। আবার এই আগুনের মধ্যেই কিন্তু হযরত ইব্রাহিম (আঃ)-কে পোড়ানোর জন্যই নিক্ষেপ করা হয়েছিল। কিন্তু সেই আগুন তাকে স্পর্শও করতে পারেনি কারণ, আগুনের নিজস্ব কোনও ক্ষমতা নেই। সব ক্ষমতার মূল উৎস এক আল্লাহ তায়ালা। তাই তাকেই ডাকতে হবে, তাঁর কাছেই পরিত্রাণ চাইতে হবে। বেশি বেশি করে দোয়া ও সাহায্য চাইতে হবে একমাত্র আল্লাহর কাছেই। তাহলেই মিলবে মুক্তি, মিলবে পরিত্রাণ।

এদিকে, বিশ্বব্যাপী মহামারি আকার ধারণ করা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে মৃত্যু হয়েছে আরও একজনের। এ নিয়ে দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে দুজন মারা গেলেন। এছাড়া নতুন করে আরও চারজন আক্রান্ত হয়েছেন। ফলে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২৪ জনে।

গত ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের উহানে প্রথম শনাক্ত হওয়া করোনা ভাইরাসে সারাবিশ্বে এখন পর্যন্ত ২ লাখ ৭৬ হাজার ৪৬২ জন আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ১১ হাজার ৪১৭ জন। এছাড়া চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৯১ হাজার ৯৫৪ জন।