১৩ দলের সঙ্গে সংলাপে ইসি

প্রকাশিত: ৯:০৯ পূর্বাহ্ণ , জুন ২৮, ২০২২

আওয়ামী লীগের একটি প্রতিনিধি দল ইসির ইভিএমবিষয়ক মতবিনিময়ে অংশ নিচ্ছেন। দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে সাত সদস্যবিশিষ্ট একটি প্রতিনিধিদল এই সংলাপে অংশ নেবেন। তৃতীয় ধাপের এই সংলাপে আওয়ামী লীগসহ ১৩টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এর আগে, দুই ধাপে ২৬টি রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানানো হলেও অংশ নেয় মাত্র ১৭টি দল।

মঙ্গলবার বিকেল তিনটায় রাজধানীর আগারগাঁও নির্বাচন ভবনে এই সংলাপ অনুষ্ঠিত হবে।

সোমবার আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া ইসির সংলাপে অংশ নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেদের নেতৃত্বে সাত সদস্যর প্রতিনিধি দলে থাকবেন- দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফরউল্লাহ, লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব.) মুহাম্মদ ফারুক খান, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটির চেয়ারম্যান সাহাবুদ্দিন চুপ্পু, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ, দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া এবং উপ-দফতর সম্পাদক সায়েম খান।

জানা গেছে, নতুন নির্বাচন কমিশন দায়িত্ব নেয়ার পর গত মার্চ থেকে কয়েক ধাপে সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, শিক্ষক, গণমাধ্যম ব্যক্তিত্বসহ সমাজের বিভিন্ন পেশাজীবী ও সিনিয়র নাগরিকদের সঙ্গে সংলাপের আয়োজন করে। এরই ধারাবাহিকতায় আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা যায় কি না- এ বিষয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর মতামত জানতে এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করে ইসি।

এ জন্য ইসির নিবন্ধিত ৩৯টি রাজনৈতিক দলকে মতবিনিময় সভায় অংশ নেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়। তিন ধাপের মধ্যে গত ১৯ ও ২১ জুন দুই ধাপে ১৩টি করে মোট ২৬টি দলকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। আর ২৮ জুন সংলাপে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বাকি ১৩টি দলকে।

তৃতীয় ধাপে আমন্ত্রণ জানানো ১৩টি রাজনৈতিক দল হলো- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন, বাংলাদেশ সাম্যবাদী দল (এম এল), বাংলাদেশের কমিউনিষ্ট পার্টি, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি), গণতন্ত্রী পার্টি, বাংলাদেশের ওয়াকার্স পার্টি, বিকল্পধারা বাংলাদেশ, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদ, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল বাসদ, বাংলদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি- বাংলাদেশ ন্যাপ, বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়াকার্স পার্টি, বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট পার্টি (মুক্তিজোট)।