ঢাকা, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । ১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গোপালগঞ্জে শেখ হাসিনাসহ ১৬ প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র বৈধ ঘোষণা

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৫, ২০২৩

গোপালগঞ্জের ৩টি সংসদীয় আসনে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা সহ ১৬ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেছেন জেলা রির্টানিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক কাজী মাহবুববুল আলম।
যাচাই বাছাই শেষে আজ সোমবার জেলা রির্টানিং অফিসার এ ঘোষণা দেন। এছাড়া ওই ৩ আসনে ৬ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে।

গোপালগঞ্জ-১ (মুকসুদপুর-কাশিয়ানীর একাংশ) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য লেঃ কর্নেল (অবঃ) মুহাম্মদ ফারুক খান, জাকের পার্টির দেলোয়ার হোসেন, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) মো: আব্দুল্লাহ, জাতীয় পার্টির (মঞ্জু) সহিদুল ইসলাম মোল্লা, তৃণমূল বিএনপির মো: জাহিদুল ইসলামের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এ আসনে মুকসুদপুর উপজেলা চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করে স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়া মোঃ কাবির মিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশন নির্ধারিত ১ শতাংশ ভোটারের মধ্যে একজন ভোটারের স্বাক্ষর সঠিক না থাকায় ওই প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা রির্টানিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক কাজী মাহবুববুল আলম।

গোপালগঞ্জ-২ (গোপালগঞ্জ-কাশিয়ানীর একাংশ) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, তৃণমূল বিএনপি’র মো: জামাল উদ্দিন শেখ, জাতীয় পার্টির কাজী শাহীন, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ আমিনুল হাসান শাহীন, জাকের পার্টির মোঃ সাজ্জাদ হোসেন মিয়া ও মুক্তি জোটের মামুনুর রশীদের মনোনয়ন পত্র বৈধ বলে বিবেচিত হয়েছে।
এ আসনে হলফনামায় মামলা সংক্রান্ত তথ্য গোপন করায় জাসদের মোঃ ফুল মিয়া ও বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির ওমর খৈয়ম নয়নের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে।

এছাড়াও গোপালগঞ্জ-৩ (কোটালীপাড়া-টুঙ্গিপাড়া) আসনে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা, গণফ্রন্টের সৈয়দা লিমা হাসান, বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির এম নিজামউদ্দিন লস্কর, এনপিপি’র শেখ আবুল কালাম এবং জাকের পার্টির মাহাবুর মোল্লার মনোনয়ন পত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এ আসনে বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. সাহিদুল ইসলাম (মিটু), জাতীয় পার্টির শিশির চৌধুরী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. কামাল হোসেনের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে।
দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গোপালগঞ্জ জেলার ৩টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য ২২ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এদের মধ্যে ৬ জনের মনোনয়ন পত্র বাতিল করা হয়েছে।

Loading

এই বিভাগের সর্বশেষ

ব্রেকিং নিউজ