হঠাৎ অসুস্থ তুর্কি প্রেসিডেন্ট

প্রকাশিত: ৪:৪০ অপরাহ্ণ , এপ্রিল ২৮, ২০২৩

তুরস্কে একটি টেলিভিশনে সাক্ষাৎকার দেয়ার সময় অসুস্থ হয়ে পড়ার পর নির্বাচনী প্রচারণা স্থগিত করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেচেপ তায়েপ এরদোয়ান। সাক্ষাৎকারের মধ্যে মি. এরদোয়ান অসুস্থ হয়ে পড়ায় অনুষ্ঠানটির সম্প্রচার হঠাৎ করে বন্ধ হয়ে যায়।

তবে ২০ মিনিট বিরতির পর অনুষ্ঠানটি শুরু হলে এরদোয়ান জানান যে ‘পাকস্থলীর ফ্লু’ এর কারণে তিনি সাময়িকভাবে অসুস্থ বোধ করছেন।

পরে তিনি টুইট করেন যে, ‘চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী আজ আমি বিশ্রাম করবো।…আগামীকাল থেকে আমরা আমাদের কার্যক্রম চালিয়ে যাবো।”

ঊনসত্তর বছর বয়সী এরদোয়ান তার রাজনৈতিক জীবনের সবচেয়ে প্রতিদ্বন্দিতাপূর্ণ নির্বাচনের জন্য প্রচারণা চালাচ্ছেন।

তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী কেমাল কিলিচদারোগলু ছয়টি দলের একটি জোটের নেতা হিসেবে নির্বাচন করছেন।

প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান অসুস্থ হওয়ার পর অনেক নেতার মত তিনিও তার দ্রুত সুস্থতা কামনা করেন।

তুরস্কের স্বাস্থ্য মন্ত্রী ফাহরেতিন কোচা বৃহস্পতিবার জানান যে প্রেসিডেন্টের শরীরের অবস্থা ভালো। মি. এরদোয়ান যত দ্রুত সম্ভব তার পূর্ব নির্ধারিত নির্বাচনী কার্যক্রম শুরু করবেন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় টেলিভিশনে লাইভ সাক্ষাৎকার দেয়ার সময় মি. এরদোয়ান যখন অসুস্থ হয়ে পড়েন, তখন তার পাশে বেশ কয়েকজন সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন।

টেলিভিশন চ্যানেল উলকে টিভি ও কানাল সেভেন – যাদেরকে সরকারের সমর্থক হিসেবে মনে করা হয় – মি. এরদোয়ানের সাক্ষাৎকারটি সরাসরি সম্প্রচার করছিল।

একজন সাংবাদিক একটি প্রশ্ন করার পরপরই ক্যামেরায় তার চিন্তিত মুখ দেখা যায়। এরপরই টেলিভিশন স্ক্রিন অন্ধকার হয়ে যায়।

মি. এরদোয়ান অবশ্য কিছুক্ষণের মধ্যেই টিভিতে এসে ব্যাখ্যা দেন যে অসুস্থ থাকায় তিনি সূচী বাতিল করতে চেয়েছিলেন।

পরে তিনি দু:খপ্রকাশ করে বলেন, “ব্যস্ততার মধ্যে আমাদের অনেক সময় এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয়।”

এই অনুষ্ঠানের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই তুরস্কের বাইরের কয়েকটি সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে জল্পনা শুরু হয় যে প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের হার্ট অ্যাটাক হয়েছে।

তবে মি. এরদোয়ানের যোগাযোগ বিভাগের প্রধান ফেপাহরেতিন আলতুন প্রেসিডেন্টের স্বাস্থ্য নিয়ে এসব ‘ভিত্তিহীন দাবি অস্বীকার’ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিবৃতি দিয়েছেন। যেসব অ্যাকাউন্ট থেকে ‘গুজব’ ছড়ানো হয়েছে, সেসব অ্যাকাউন্টের স্ক্রিনশটও প্রকাশ করেছেন তিনি।

এসব গুজবের জবাব দিয়ে তিনি টুইট করেন: “যত মিথ্যা তথ্যই ছড়ানো হোক, তুরস্কের মানুষ ১৪ই মে’র নির্বাচনে তাদের নেতা এরদোয়ানের সাথে থাকবে এবং তার একে পার্টি বিজয়ী হবে।”

গত ২১ বছর ধরে মি. এরদোয়ান ক্ষমতায় আছেন। এই প্রথমবার টিভিতে লাইভ ইন্টারভিউ চলাকালে তার অসুস্থ হওয়ার মত ঘটনা ঘটলো।

এর আগে ২০১১ এবং ২০১২ সালে তার পাকস্থলীতে অস্ত্রোপচার হয়। সেসময়ও তার স্বাস্থ্য নিয়ে নানা কানাঘুষা তৈরি হয়েছিল।

সূত্র: বিবিসি বাংলা

Loading