‘পদ্মা’ ও ‘মেঘনা’ নামেই চূড়ান্ত হচ্ছে নতুন দুই বিভাগ

প্রকাশিত: ৮:২৪ অপরাহ্ণ , নভেম্বর ২২, ২০২২

অবশেষে দুই নদীর নামেই হচ্ছে নতুন দুটি প্রশাসনিক বিভাগ। এর মধ্যে বৃহত্তর ফরিদপুরের কয়েকটি জেলা নিয়ে ‘পদ্মা’ বিভাগ এবং কুমিল্লা ও আশপাশের জেলাগুলো নিয়ে হবে ‘মেঘনা’ বিভাগ।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, আগামী রোববার (২৭ নভেম্বর) প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস–সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির (নিকার) সভা রয়েছে। এই সভার আলোচ্যসূচিতে নতুন দুটি বিভাগ অনুমোদনের প্রস্তাব ওঠার কথা রয়েছে। একই দিনে সচিব সভাও অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে এসব সভা অনুষ্ঠিত হবে।

দেশে বর্তমানে ৮টি বিভাগ রয়েছে। এসব জেলার নাম দিয়ে নামকরণ করা হলেও এই প্রথম নদীর নাম দিয়ে বিভাগের নাম করার প্রস্তাব করা হচ্ছে। এদিকে নোয়াখালী বিভাগ গঠনের দাবি ছিল দীর্ঘদিনের। এই দাবিতে নানা কর্মসূচিও পালন করেছেন নোয়াখালীবাসী। কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, চাঁদপুর এবং নোয়াখালী, ফেনী ও লক্ষ্মীপুর- এই ছয় জেলা নিয়ে হবে ‘মেঘনা’ বিভাগ। আর ফরিদপুর, শরীয়তপুর, রাজবাড়ী, গোপালগঞ্জ ও মাদারীপুর- এই ৫ জেলা নিয়ে গঠিত হবে বিভাগ ‘পদ্মা’। এই নতুন দুইটি বিভাগ গঠন করা হলে দেশে মোট বিভাগের সংখ্যা হবে ১০টি।

সূত্রে জানা গেছে, ওই দুই বিভাগ গঠনের প্রস্তাব ছাড়াও কুষ্টিয়া জেলার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানাকে ঝাউদিয়া এলাকায় স্থানান্তর করে ঝাউদিয়া থানা নামকরণ এবং ঝাউনিয়া পুলিশ ক্যাম্প ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে স্থানান্তর করে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় পুলিশ ক্যাম্প হিসেবে নামকরণ করার প্রস্তাব করা হবে।

ওই বৈঠকে সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলার পৌরসভা গঠন, বগুড়া জেলার সারিয়াকান্দি উপজেলার কাজলা ও বোয়াইল ইউনিয়নের বিরোধপূর্ণ অংশ বিয়োজন করে জামালপুর জেলার মাদারগঞ্জ উপজেলার সংযোজন করে মাদারগঞ্জ উপজেলার সীমানা পুনর্গঠন এবং ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল পৌরসভার সীমানা সম্প্রসারণের প্রস্তাব করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, মূলত দেশের নতুন বিভাগ, জেলা, উপজেলা, সিটি করপোরেশন, পৌরসভা ও থানা গঠন বা স্থাপনের প্রস্তাব বিবেচনা করে থাকে নিকার। প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই কমিটিতে আরও ১১ জন মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রী সদস্য হিসেবে রয়েছেন। এছাড়া মন্ত্রিপরিসদ সচিব, প্রধানমন্ত্রীর মূখ্যসচিব ছাড়াও বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের ১১ জন সচিব ও সচিব পদমর্যাদার কর্মকর্তারা নিকারে রয়েছেন।

Loading