প্রেমিকাকে ডেকে নিয়ে দলবদ্ধ ধর্ষণ, আটক ৪

প্রকাশিত: ৪:৪৭ অপরাহ্ণ , নভেম্বর ১০, ২০২২

ইসলামী মাহফিল শুনতে এসে প্রমিকার সাথে দেখা করতে গিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষনের শিকার হয়েছে প্রমিকা। ঘটনাটি ঘটেছে চিরিরবন্দর উপজেলার নশরতপুর রানীপুর ডাঙ্গাপাড়া এতিমখানা এলাকায়। এ ঘটনায় ওই নারীর দায়ের করা মামলায় ৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে চিরিরবন্দর থানা পুলিশ।

গত বুধবার ৯ নভেম্বর রাতে চিরিরবন্দর থানা অফিসার ইনচাজর্ (ওসি)মোঃ বজলুর রশিদের নের্তৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্সসহ উপজেলার রানীরবন্দর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত আসামিরা হলেন, মিজানুর রহমান(২৮) পিতা-মোঃ জিকরুল হক, দিলীপ রায় (২৩)পিতা-ঋষিকেশ রায় সোহেল রানা(২৫)পিতা-মৃত মিরাজ আলী উভায়ের গ্রাম কিসমত নশরতপুর। অপরদিকে নুর আলম(২২)পিতা মোঃ আব্দুস সাত্তার সে পার্বতীপুর উপজেলার রাজাবাসর গ্রামের বাসিন্দা। বিষয়টি নিশ্চিত করেন চিরিরবন্দর থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোঃ বজলুর রশিদ।

পুলিশ ও ভুক্তভোগীর পরিবার জানায়, মঙ্গলবার ( ৮ নভেম্বর) দিবাগত রাতে পোশাক শ্রমিক ওই নারী উপজেলার পার্শ্ববর্তী রানীপুর ডাঙ্গাপাড়া এতিমখানা এলাকায় ইসলামী মাহফিল শোনার জন্য যায়। সেখানে প্রমিক মিজানুর রহমান ওই নারীকে পাশের একটি বাঁশ ঝাঁড়ে ডেকে নেয় ও সেখানে আগে থেকে থাকা তার তিন বন্ধু মিলে জোড়পূর্বক পালাক্রমে তাকে ধর্ষণ করে।

চিরিরবন্দর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ বজলুর রশিদ জানান,আসামিদের বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে এবং ভিকটিমের ফরেনসিক ও ডিএনএ পরীক্ষার জন্য এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ফরেনসিক বিভাগের প্রেরণ করা হয়েছে।

Loading