চিরিরবন্দরে সেপটিক ট্যাংকের বিষক্রিয়ায় দুই ভ্যান চালকের মৃত্যু

প্রকাশিত: ১:০৪ অপরাহ্ণ , সেপ্টেম্বর ৭, ২০২২

দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে সেপটিক ট্যাংকে জমে থাকা গ্যাসের বিষক্রিয়ায় সাইদুর ইসলাম (৪০) ও মাবুদ হোসেন (৩০) নামে দুই ভ্যান চালকের মৃত্যু হয়েছে।
বুধবার (৭ সেপ্টেমবর) সকালে উপজেলার ইসবপুর ইউনিয়নের নখৈর গ্রামের মহির উদ্দিন পোনাতির বাড়িতে এ দূঘর্টনা ঘটে। নিহত সাইদুর ইসলাম উপজেলার নখৈর বানিয়া পাড়ার মহির উদ্দিন বাপুই ইসলামের পুত্র ও মাবুদ হোসেন একই এলাকার আবু তাহেরের পূত্র বলে জানা গেছে।

স্থানীয়রা জানান, কিছুদিন আগে মহির উদ্দিন পোনাতির বাড়িতে বাথরুমের একটি নতুন সেপটিক ট্যাংক নির্মাণ করা হয়। নির্মাণ কাজ শেষ হলে বাঁশের সাটারিং খুলতে সেফটি ট্যাংকের ভিতরে প্রবেশ করে রাজমিস্ত্রি আলতাব হোসেন (৪০)। কিন্তু সেপটি ট্যাংকের বিষাক্ত গ্যাসে রাজ মিস্ত্রি আলতাব হোসেন ভিতরে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। পরে নিচ থেকে তার কোন সারা শব্দ না পেয়ে বাঁচাও বাঁচাও বলে চিৎকার শুরু করে তার সহযোগী।

পরে পাশে রাস্তা দিয়ে যাওয়া দুই ভ্যানচালক সাইদুর ও মাবুদ সেখানে ছুঁটে গিয়ে তাকে উদ্ধার করতে নিচে নামে। এ সময় সেপটিক ট্যাংকের ভিতরে জমে থাকা গ্যাসের বিষক্রিয়ায় তারাও জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। পরে আশেপাশে থাকা আরো লোকজন ও রাস্তার পথচারী দৌড়ে এসে তাদের তিনজনকেই উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার সময়ে ভ্যানচালক সাইদুর ও মাবুদ রাস্তায় মৃত্যুবরণ করেন। অপরদিকে রাজমিস্ত্রি আলতাব হোসেনকে আশংঙ্কাজনক অবস্থায় রংপুর মেডিকেল হাসপাতালে নেওয়া হয়।

এ বিষয়ে চিরিরবন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: বজলুর রশিদ জানান, সেপটিক ট্যাংকের ভেতরে বিষাক্ত গ্যাসের কারণে দুজনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানাগেছে। কোন অভিযোগ না থাকায় মৃত দুই ভ্যানচালকরে মরদেহ পরিবারের মাঝে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Loading