আদাবরে চার মাসের শিশুকে গলা কেটে হত্যা

প্রকাশিত: ৫:৫৮ অপরাহ্ণ , জুলাই ৩, ২০২০

রাজধানীর আদাবরে সাদিয়া নামে চার মাস বয়সের এক শিশুকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। নিহত আয়শা আক্তার সাদিয়ার বাবার নাম শাজাহান মিয়া ও মা মুর্শিদা বেগম। শিশুটি পানির পাম্পের পাশে একটি বস্তি ঘরে তার বাবা-মার সঙ্গে থাকতো।

আজ শুক্রবার দুপুরে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে আদাবর থানা পুলিশ। আদাবর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিদুজ্জামান সাংবাদিকদের কাছে এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

শাহিদুজ্জামান বলেন, ঘরের বিছানায় শোয়া অবস্থায় শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। শিশুটির গলার সামনের দিকে কাটা ছিল। হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে আমরা বিস্তারিত জানার চেষ্টা করছি। ঘটনার সময় শিশুটির মা রান্নাঘরে ও বাবা বাইরে ছিলেন। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

আদাবর থানার এসআই সোহেল রানা বলেন, প্রতিদিনের মত সকালে কাজের খোঁজে বাসা থেকে বেরিয়ে গিয়েছিলেন শাজাহান। সাদিয়াকে ঘরে রেখে পঞ্চাশ গজ দূরে আরেকটি ঘরে রান্না করছিলেন তার মা। সাদিয়ার আট বছর বয়সী ভাই খেলতে বেরিয়েছিল।

“ওই সময় কেউ ঘরে ঢুকে সাদিয়াকে গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে যায়। তার মা রান্নাঘর থেকে ফিরে সাদিয়ার রক্তাক্ত দেহ দেখে চিৎকার শুরু করেন, সাদিয়াকে বাঁচানোর জন্য স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নিয়ে যান। কিন্তু ততক্ষণে মেয়েটা মারা গেছে।”

কেন একটি শিশুকে এভাবে হত্যা করা হতে পারে, সে বিষয়ে কোনো ধারণা পাননি জানিয়ে সোহেল রানা বলেন, “বস্তির অনেককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে, আসরা হত্যাকারীকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছি।”