পটুয়াখালীতে নিখোঁজ অধ্যাপিকার লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত: ৭:৩৫ অপরাহ্ণ , মার্চ ২১, ২০২২

নিখোঁজের ৩৬ঘণ্টা পর পটুয়াখালী সরকারি কলেজের অধ্যাপক মনোয়ারা বেগমের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার ভোর রাতে শহরতলীর ইটবাড়িয়া ইউনিয়নের পায়রা নদীর কালিচন্না খেয়াঘাট থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানায়, এলাকাবাসীর সংবাদের ভিত্তিতে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত ১৮ তারিখ তিনি ঢাকা থেকে চিকিৎসা শেষে লঞ্চে স্বামী ইসাহাক মোল্লার সঙ্গে পটুয়াখালী আসেন। ১৯ মার্চ শেষ বিকালে শহরের সবুজবাগ ২নং লেনেস্থ নিজ বাসা থেকে নিখোঁজ হন মনোয়ারা বেগম। অনেক খোঁজাখুঁজির পরও তাকে কোথাও খুঁজে না পেয়ে তার স্বামী পটুয়াখালী সদর থানায় মৌখিকভাবে বিষয়টি জানান। পরে সোমবার সকালে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায় পুলিশ।

নিহতের পরিবার আরও জানায়, দুই বছর আগে করোনায় ছেলের অকাল মৃত্যুর পরই তিনি মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেন।

জানা গেছে, মনোয়ারা বেগম পটুয়াখালী সরকারি কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান ছিলেন। ২০২০ সালে তিনি অবসর গ্রহণ করেন। তার স্বামী মো. ইসাহাক মোল্লাও পটুয়াখালী করিম মৃধা কলেজের সাবেক অধ্যাপক।

পটুয়াখালী সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মনিরুল ইসলাম জানান, আমরা খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছি। এই বিষে নিহতের স্বামীর অভিযোগের ভিত্তিতে পটুয়াখালী সদর থানায় একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা নেয়া হয়েছে।

Loading