চট্টগ্রামে ৭ জনের ওমিক্রন শনাক্ত

প্রকাশিত: ৯:৫৫ অপরাহ্ণ , জানুয়ারি ২০, ২০২২

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিমেল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ে (সিভাসু) ওমিক্রন শনাক্তের কিটে ৭ জনের শরীরে ভাইরাসটির অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। প্রায় ৯০ ভাগ নিশ্চিত যে নমুনাগুলোতে ওমিক্রনের অস্তিত্ব রয়েছে। তবে অধিকতর নিশ্চিত হতে নমুনা জিনোম সিকোয়েন্সের জন্য পাঠানো হচ্ছে ঢাকায়।

সহকারী অধ্যাপক ও সিভাসুর ল্যাবের দায়িত্বে থাকা ইফতেখার রানা বলেন, বিদেশ থেকে আনা ওমিক্রন শনাক্তের কিটে ৭ জনের শরীরে ওমিক্রন ভাইরাসটির অস্তিত্ব মেলে। তারা সবাই চট্টগ্রাম অঞ্চলের বাসিন্দা।

সিভাসুর উপাচার্য গৌতম বুদ্ধ দাশ বলেন, অধিকতর নিশ্চিত হতে ঢাকায় নমুনাগুলো পাঠানো হবে। রোববারের দিকে ফলাফল পেলে নিশ্চিত হওয়া যাবে আসলে ওমিক্রন কিনা।

এর আগে ডিসেম্বর মাসে বিদেশ থেকে ১০০ টির মতো ওমিক্রন শনাক্তের কিট আনে সিভাসু। সূত্র জানায়, ইতিমধ্যে ২০ টিরও বেশি পরীক্ষা করেছে। এর মধ্যে ৭ টিতে ওমিক্রন শনাক্ত হয়।

সিভাসুতে আনা এ কিটের মাধ্যমে ৩-৫ ঘণ্টার মধ্যে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত কি-না, তা বোঝা যাবে। ১০০ টির কিটের খরচ পড়েছে প্রায় ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা।

Loading